বঙ্গে বিজেপি মজবুত হচ্ছে দেখে তৃণমূলকে তীব্রভাষায় হুঁশিয়ারি দিলেন দিলীপ ঘোষ।

রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ফের একবার পাওয়া গেল চেনা মেজাজে। এই দিনও তিনি তীব্র ভাষায় আক্রমণ করতে পিছু পা হলেন না। তিনি শমহিমায় এই দিন শাসক দল কে আক্রমণ করলেন। দিলীপবাবু রবিবার কেশিয়াড়ি বাজারে একটি প্রতিবাদ জনসভাতে যোগ দিয়েছিলেন। এই দিনের এই জনসভা থেকেই তিনি তৃনমূলকে আক্রমণ করেন। তিনি বলেন যে শাসক দল যেভাবে গায়ের জোরে ভয় দেখিয়ে বিরোধী দের চুপ করিয়ে রাখছেন সেটা আর বেশি দিন চলবে না। শাসক দল তো বিরোধীদের ভয় পেয়েছিল তাই এবার পঞ্চায়েত ভোটে নমিনেশন জমা দিতে দেয় নি। কারন তাদের নিজের দলের নেতা মন্ত্রী দের উপর বিশ্বাস ছিল না।

কিন্তু এই ভাবে ভয় দেখিয়ে আর কিছু হবে না। তারা যত অত্যাচার করেছে সাধারণ মানুষ সহ বিরোধীদের উপর সবকিছু লিখে রেখে দিয়েছি আমি। যদি রাজ্যে পরিবর্তন আসে তাহলে সব কিছু ঠান্ডা করে দেওয়া হবে। তাই তৃনমূলকে বলছি এখন থেকে ঠাণ্ডা হয়ে যান। তাহলে পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনাদেরই সুবিধা হবে। এখন থেকে ঠান্ডা হলে মার কম হওয়ার কথা বলেন দিলীপ ঘোষ। সেই দিনের সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি সমীর দাস, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সনাতন দোলই প্রমুখ।

তাদেরকে সামনে রেখে এই জনসভাতে তিনি বলেন যে চারিদিকে তৃনমূল যেভাবে অত্যাচার চালাচ্ছেন, খুন খারাবি করছেন। তার জবাব মানুষই দেবে।  এই রাজ্যের মানুষ যারা একদিন তৃনমূল কে রাজ্যের উন্নতি করার জন্য নিয়ে আসেছিল তারাই একদিন তৃনমূলকে ছুড়ে ফেলে দেবে। কারন তৃনমূল তাদের দেওয়া কথা রাখতে পারেন নি। উলটে তাদের আমলে রাজ্যে সাধারণ মানুষ কে অত্যাচারিত হতে হয়েছে। তাদের পুষে রাখা গুন্ডাবাহীনির দারা খুন হতে হয়েছে অনেক নিরিহ মানুষ দের।

রাজ্যে প্রচুর বেকারত্ব বেড়েছে। অনেক কৃষক প্রান হারিয়েছেন দারিদ্র্যতার জন্য। কিন্তু তৃনমূল সরকার সেই দিকে নজর দেই নি কারন তাদের শুধু মাত্র গদির লোভ আছে।  তাই এই দিনের জনসভায় তিনি সাধারন মানুষজন কে অনুরোধ করেন যে আপনারা দলে দলে বিজেপিতে যোগদান করুন। আপনাদের জন্যই আমাদের এই লড়াই। তাই আপনারা আমাদের পাশে থাকুন এবং ভোট দিয়ে বিজেপি প্রার্থীদের জয়যুক্ত করুন।
#অগ্নিপুত্র

Related Post

Open

Close