রাহুল ও সোনিয়াকে জেলে ঢোকানোর জন্য তৈরি হয়ে পড়েছে বিজেপি সাংসদ সুব্রামানিয়াম স্বামী।

বিগত ৬০ বছর ধরে ভারতকে লুটেপুটে খাওয়া কংগ্রেসের শেষসময় এগিয়ে এসেছে। মহাভন্ড গান্ধী পরিবারের সদস্যদের জেলে ঢোকানোর যে স্বপ্ন দেশবাসীর মধ্যে রয়েছে তা এবার পূরণ হতে বেশি সময় লাগবে না। আর এর সমূর্ন শ্রেয় যাবে বিজেপির ক্ষমতাশালী ও তীক্ষ্ণবুদ্ধিসম্পন্ন নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী। সম্প্রতি পাওয়া খবর অনুযায়ী, ন্যাশনাল হেরাল্ড দুর্নীতি মামলা নিয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও কংগ্রেসের পূর্ব সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর(আন্তোনিয়া মিয়ানো) এর উপর সমস্যা আরো তীব্র হয়ে চলেছে। এই মামলায় আয়কর বিভাগ ২৫০ কোটি টাকার জরিমানা লাগিয়েছে বলে সূত্রের খবর।

পাইনিয়ার সংবাদ মাধ্যম থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী শহর বিকাশ মন্ত্রালয় হেলরাল্ড হাউস সিজ করা নিয়ে ইতালির সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীকে নোটিস পাঠিয়ে দিয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এই নোটিসের পর সোনিয়া ও রাহুলের সমস্যা আরো বেশি বেড়ে গিয়েছে। সোনিয়া ও রাহুল গান্ধীর মালিকানা ভিত্তিক কোম্পানি ইয়াং ইন্ডিয়া অবৈধভাবে ন্যাশনাল হেরাল্ড এর প্রকাশন কোম্পানি এসোসিয়েট জেনারেল লিমিটেডের অধিগ্রহণ করেছিল।

বিজেপির বরিষ্ঠ নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী ইয়াং ইন্ডিয়ার মালিক সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ধোঁকাবাজি করার মামলা দায়ের করেছিলেন। কিছুমাস আগে ,আয়কর বিভাগ করচুরি করার মমালায় সোনিয়া ও রাহুলের বিরুদ্ধে ২৫০ কোটি টাকার জরিমানার নোটিস জারি করেছিল। ন্যাশনাল হেরাল্ড এর মামলায় সাফভাবে ধোঁকাবাজি করার প্রমাণ পাওয়ার পর শহরবিকাশ মন্ত্রণালয় সিজ করার সিধান্ত নিয়েছে।

এখন আয়কর বিভাগ ন্যাশনাল হেরাল্ড ও ইয়ং ইন্ডিয়ার ট্যাক্সের মূল্যায়ন করার আদেশ দেওয়ার পর রাহুল গান্ধী দিল্লি আদালতের দারস্ত হয়েছিল। কিন্তু সেখানেও কোর্ট রাহুল গান্ধীর কথা শুনতে নারাজি প্রকাশ করে। রাহুল গান্ধীর উকিল আদালতের আবেদন করে যে এই খবরের রিপোটিং যেন মিডিয়ায় না করা হয় কিন্তু আদালত রাহুল গান্ধীর উকিলের এই আবেদনকে তিরস্কার করেন।

Related Post

Open

Close