মোদী সরকারের সুনামে এই আন্তর্জাতিক সংস্থা যা বললো জানলে আপনিও গর্বিত হবেন।

কেন্দ্রে মোদী সরকার আসার পর থেকেই দেশকে অর্থনৈতিকভাবে মুজবুত করতে এবং দেশের দুর্নীতিকে ব্যবস্থাকে ঝটকা দেওয়ার জন্য বড়ো বড়ো পদক্ষেপ নিয়েছিল। যার মধ্যে নোটবন্দি ও GST ছিল অন্যতম, সেই সময় বিরোধীরা এই পদক্ষেপ গুলিকে নিয়ে বিরোধিতা করলেও এখন যখন দেশের GDP ও বিদেশি মুদ্রার ভাণ্ডার বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে তখন নিশ্চুপ হয়ে বসে পড়েছে বিরোধী শক্তিগুলি। কোনো দেশের বিকাশ হচ্ছে কিনা তার সঠিক মূল্যায়ন করার জন্য বিশেষজ্ঞরা GDP এর উপর নজর দেন। জানলে অবাক হবেন কংগ্রেস আমলের ভারতের নমিনাল GDP এর দিক থেকে ৯ ও ১০ স্থানের মধ্যে থাকতো। কিন্তু মোদী সরকার মাত্র ৪ বছরে ভারতের GDP কে ৫ স্থানে নিয়ে গেছে।

২০১৪ সালে ভারত নমিনাল GDP তে নবম স্থানে ছিল কিন্তু মোদী সরকার আসার পর ২০১৭ সালে ব্রিটেন সহ তাবড় দেশগুলোকে পিছনে ফেলে ভারত পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে। আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির দাবি, এইভাবে চলতে থাকলে ২০২০ এর মধ্যে ভারত জার্মানিকে পেছনে ফেলে দেবে এবং ২০২৩ এর মধ্যে জাপানের আগে স্থান দখল করবে ভারত। শুধু এই নয়, সম্প্রতি IMF ভারতের অর্থব্যাবস্থা সম্পর্কে যা মন্তব্য করেছে তা জানার পর প্রত্যেক ভারতীয়র বুক গর্বে ফুলে উঠবে।

IMF জানিয়েছে বর্তমানে ভারতের অর্থব্যাবস্থা সবথেকে দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। IMF ভারতের অর্থব্যবস্থাকে এমন হাতি বলে উল্লেখ করেছে যা দৌড়াতে শুরু করেছে। ইন্টারন্যাশনাল মনিটারী ফান্ডের তাজা রিপোর্ট অনুযায়ী মার্চ ২০১৯ থেকে ভারত ৭.৩ % ও তারপর ৭ ৫% হারে বিকাশ করবে। শুধু এই নয় গ্লোবাল গ্রোথে ভারতের ১৫% অবদান থাকবে বলেও জানিয়েছে এই আন্তর্জাতিক সংস্থা।

এইভাবে বৃদ্ধি হতে থাকলে পরবর্তী তিন দশকে ভারতের চীনের স্থান দখল করবে বলে দাবি সংস্থার। শুধু IMF নয়, ওয়ার্ল্ড ব্যাঙ্কের এক আধিকারিকও দাবি করেছে যে ২০৩০ এর জন্যে বিশ্ব স্তরের যে বিকাশের লক্ষ্য রাখা হয়েছে তা সম্পুর্নভাবে ভারতের উপর নির্ভর করবে। এমনকি চীনের সরকারি মিডিয়া ‘গ্লোবাল টাইমস’ পর্যন্ত স্বীকার করেছে যে মোদী সরকারের আমলে ভারতের অর্থনীতিতে ব্যাপক হারে বৃদ্ধি হচ্ছে।

Related Post

Open

Close