আরো একবার তৃণমূলকে কড়া ভাষায় কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও তার আক্রমণাত্মক মনোভাবের কথা কারুর অজানা নেই। অন্যায় দেখলেই তিনি যে চুপ করে থাকতে পারেন না। অন্যায় যেই করুক সে শাসক দলই হোক বা অন্য কেউ তিনি তার প্রতিবাদ করতে কখন পিছু পা হন না। তাই এবারও তাকে তার সেই চেনা মেজাজে পাওয়া গেল। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই দিন নিমতৌড়ি স্মৃতিসৌধে পূর্ব মেদিনীপুরে একটি সভায় যোগদান করেন সেখানে তিনি তৃনমূলকে কটাক্ষের শুরে বলে যে “একদিকে গাঁজা,আর একদিকে টাকা” এটাই হচ্ছে বর্তমান তৃনমূলের নীতি।

এই দিনের এই সভা থেকে তিনি তৃনমূল কংগ্রেস কে আক্রমনের সুরে বলেন যে ওরা ভেবেছে যে টাকা দিয়ে সব কিছু কেনা যায়, ওরা এটা ভুল ভাবছে। ওদের জেনে রাখা দরকার টাকা দিয়ে ছাগল, কুকুর কেনা যায় কিন্তু মানুষ কেনা যায় না। হ্যাঁ ওরা টাকা দিয়ে কয়েকজন সিপিএম ও কংগ্রেসের সস্তার বিধায়ক কে কিনে নিয়েছে। কিন্তু বিজেপির কেউ কে ওরা কিনতে পারে নি। তবে ওরা যে চেষ্টা করে নি সেটা নয়। ওরা ক্রমাগত চেষ্টা করেই চলেছে।

 

চেষ্টার কোনো খামতি রাখে নি। কিন্তু ওরা এই কাজে সফলতা লাভ করতে পারছে না। তৃনমূলের বিধায়করা এখন নিয়ম করে প্রতিটি বিজেপি নেতার বাড়ি যাচ্ছেন। কিন্তু সেখানে জুতো আর ধাক্কা ছাড়া আর কিছুই জুটছে না তাদের কপালে। কোনো কোনো বিজেপি নেতা তাদের কে বাড়ির চৌকাঠ অব্দি পেড়তে দিচ্ছেন না। দিলীপ বাবু অভিযোগ করে বলেন যে তৃনমূলের বিধায়করা যাবার সময় সাথে করে নিয়ে যাচ্ছেন গাঁজা আর টাকা।

প্রথমে টাকার লোভ দেখানো হচ্ছে কিন্তু যারা টাকা নিতে অশিকার করছেন তাদের কে ভয় দেখানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে যে টাকা না নিলে তাদের কে গাঁজার মিথ্যা কেশ দিয়ে ভিতরে ঢোকানো হবে। দিলীপ বাবু এই দিন স্পষ্ট বলে দিলেন যে এই সব করে ভয় দেখিয়ে বিজেপিকে আটকানো যাবে না। আমরা লড়াই করছি করব। সাধারণ মানুষের জন্য আমাদের এই লড়াই কেউ রুখতে পারবে না।
#অগ্নিপুত্র

Related Post

Open

Close