বড়ো ধাক্কা খেল কংগ্রেস! মহাজোট বন্ধনে কংগ্রেসকে সমর্থন করবে না এই দল।

আগেই বলা হয়েছিল যে সব শত্রু যদি একসাথে জোট করে তাহলে কখনই সেই জোটে জোর থাকবে না। কারন তারা এত দিন একে অপরের বিপক্ষে লড়াই করে এসেছে। একে অপরকে সব সময় আঘাত করে এসেছে তাই তারা বাইরে বাইরে যতই বন্ধুসুলভ আচরণ করুক না কেন। ভিতরে যে তাদের মধ্যে একটা হিংসা আছে সেটা একদিন ঠিক ফুটে উঠবে। তাই লোকসভা ভোট যতই এগিয়ে আছে ততই তাদের মধ্যেকার সংঘাত সামনে চলে আসছে। সমস্ত বিরোধীদের একজোট হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীন থেকে ক্ষীণতর হয়ে যাচ্ছে দিনের পর দিন। বিরোধীদের একজোট হয়ে মোদীর বিরুদ্ধে লড়াই করা যে এখন অনেক দূরের কথা সেটা পরিষ্কার হয়ে যায়, রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান পদে গতকাল যখন ভোটাভুটি হচ্ছিল সেই সময়ে।

এবার আম আদমি পার্টির তরফে কংগ্রেসকে পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছে যে, তারা যোগদান করতে পারবেন না বিজেপি বিরোধী মহাজোটবন্ধনে। গতকাল আপ তাদের ভোট বয়কট করে দেন। তার পরই আপ সুপ্রিমো ও দিল্লির
মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল বলেছেন, যেসব দল গুলি মহাজোটে অংশ নিয়েছে তারা কোনো দিন দেশের উন্নতিতে কোনও ভূমিকা রাখে নি। তারা দেশের কথা ভাবে নি। দেশের যাতে ভালো হবে সেই দিকে নজর না রেখে সেই দল গুলি শুধুমাত্র নিজেদের গদি বাচানোর চেষ্টা করেছে। সেই সাথে তিনি বলেন যে মোদী সরকার দিল্লির উন্নয়নকাজে বাঁধা দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন যে এইসব জোটের রাজনীতি তার কাছে কোনো গুরুত্ব রাখে না। তিনি রাজনীতি মানে শুধু মানুষের উন্নয়ন বোঝেন। গতকালের ভোটাভুটিতে আপ যোগদান করেন নি। কারন হিসাবে আপের তরফে জানানো হয়েছে যে তাদের দলে কোনো নেতাকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ফোন করে ভোট দেওয়ার কথা জানায় নি। তাই তারা ভোট বয়কট করেছেন। সঞ্জয় সিংহ নামে দলিয় এক নেতা জানিয়েছেন যে রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রীকে আলিঙ্গন করতে পারেন অথচ কেজরিবালকে ফোন করার মত সময় তার নেই।

তাই বাধ্য হয়েই তারা এই ভোটে অংশগ্রহণ করেন নি। এর ফলে বোঝায় যাচ্ছে যে এই জোট কোনো ভাবেই সফল হতে পারবে না। কারন এখন থেকেই এদের মধ্যে মতের পাথক্য তৈরি হয়ে গেছে।আসলে কংগ্রেসকে দূরে রেখে বিরোধী দলগুলিকে নিজেদের নেতৃত্বে মোদী বিরোধী জোট তৈরির প্রচেষ্টায় রয়েছে। অর্থাৎ সোনিয়া গান্ধী যখন রাহুল গান্ধীকে দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে বসানোর জন্য উঠে পড়ে লেগেছে, তখন কেজরিওয়াল নিজে সেই একই স্বপ্ন দেখে মহাজোট এর চিন্তা ভেস্তে দিলেন।

#অগ্নিপুত্র

Related Post

Open

Close