Press "Enter" to skip to content

অতিমারি নিয়েও দুর্নীতি, শুভেন্দু অধিকারীর নিশানায় তৃণমূল সরকার


কলকাতাঃ কসবায় ভুয়া কান্ডের পর থেকেই সরকারী দুর্নীতি নিয়ে বারবার সরব হচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। এর আগেই ভ্যাকসিন কেলেংকারী কান্ডে াঞ্জন দেবের (Debanjan Deb) গ্রেপ্তারের পর তদন্ত দাবি করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। ইতিমধ্যে কেন্দ্রের কাছে চিঠিও লিখেছেন তিনি। এবার ফের একবার রাজ্য সরকারের দুর্নীতি নিয়ে সরব হলেন শুভেন্দু।

একথা ঠিক যে দেবাঞ্জন দেবের সাথে রাজ্যের বিভিন্ন বিধায়কদের ছবির এমনিতেই বেশ কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েছে তৃণমূল ()। শুধু তাই নয় যোগ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা পুরসভারও৷ কারণ দেবাঞ্জনের অফিস থেকে উদ্ধার হয়েছে কলকাতা পুরসভার লেটারহেড। শুধু তাই নয় আই কার্ডেও নিজেকে জয়েন্ট কমিশনের হিসেবেই পরিচয় দিয়েছেন দেবাঞ্জন। আর সেই কারণেই পুরসভার যোগের তত্ত্ব একেবারে উড়িয়ে দিতে পারছে না পুলিশ আধিকারিকরা।

এরই মধ্যে ফের একবার টুইট করে রাজ্য সরকারকে বেশ কিছুটা অস্বস্তিতে ফেললেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন টুইটারে তিনি লেখেন, “দুহাজার কোটির প্যানডেমিক পারচেজ স্ক্যাম কমিটির রিপোর্ট সামনে আনতে হবে রাজ্য সরকারকে। কেন এই রিপোর্ট লুকোনো হচ্ছে। বর্তমান রাজ্য সরকারের মুখ্য উপদেষ্টা তথা প্রাক্তন মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এই কমিটির প্রধান। যত দ্রুত সম্ভব এই রিপোর্ট সামনে আনা হোক।” শুধু তাই নয় এই টুইটে ব্যানার্জিকে () মেনশনও করেন তিনি।

আলাপনকে (Alapan Bandyopadhyay) নিয়ে প্রথম কিছুদিন চুপ থাকলেও পরে বারবারই তাকে নিয়ে মুখ খুলেছেন শুভেন্দু। এমনকি তিনি মহামারী আইনের অন্যথা করেছেন বলেও দাবি করেছিলেন তিনি। এমনকি তাদের শোকজের জন্যও দরবার করেন শুভেন্দু। এবার ফের একবার আলাপনের উদ্দেশ্যে তোপ দাগতে দেখা গেল শুভেন্দু অধিকারীকে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, আর এই পদক্ষেপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

যদিও আলাপন বন্দোপাধ্যায়কে নিয়ে শুভেন্দু অধিকারী মুখ খুলল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) এ বিষয়ে মতামত সম্পূর্ণ ভিন্ন। তিনি বারবার জানিয়েছেন এটা সরকার এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিষয়ে অন্তত তাদের কিছু বলার নেই। কিন্তু যেভাবে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফের একবার নিশানার কেন্দ্রে নিলেন শুভেন্দু। অনেকেই মনে করছেন রাজ্যের মুখ্য উপদেষ্টার বিরুদ্ধে এবার হয়তো স্ট্র্যাটেজি বদল করতে চলেছে রাজ্য বিজেপি ()।