Press "Enter" to skip to content

অত্যাধিক জিন্নাহ প্রেমী হওয়ায় অখিলেশ যাদবের নাম পাল্টে দিল বিজেপি, হাস্যকর হল নতুন নাম

[ad_1]

লখনউঃ উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ যত এগিয়ে আসছে, ততই রাজনৈতিক দলের নেতাদের মধ্যে বয়ানবাজি বেড়ে চলেছে। বিশেষ করে সমাজবাদী পার্টি (Samajwadi Party) আর ভারতীয় জনতা পার্টির (Bharatiya Janata Party) নেতারা একে অপরকে তুমুল ভাবে আক্রমণ করে চলেছেন। উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে করা সমীক্ষায় এই দুই পার্টির মধ্যেই টক্করের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আর এই কারণেই দুই দল একে অপরকে তুলোধোনা করতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে।

আর এরই মধ্যে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য (Keshav Prasad Maurya) এমন এক বয়ান দিলেন, যা নিয়ে তুমুল হাঙ্গামা হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। কেশব প্রসাদ মৌর্য সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদবকে (Akhilesh Yadav) কটাক্ষ করে বলেছেন, এখন থেকে ওনাকে আমি আর অখিলেশ যাদব নয়, অখিলেশ জিন্নাহ নামে ডাকব। কেশব প্রসাদ মৌর্য বলেন, অখিলেশ যাদব পিছিয়ে পড়া জাতীদের নিয়ে রাজনীতি করতে চাইছেন, তবে উনি এতে সফল হবেন না।

বলে দিই, সমাজবাদী পার্টির সভাপতি তথা রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব একটি নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন, দেশের স্বাধীনতার পিছনে মহম্মদ আলি জিন্নাহ (Muhammad Ali Jinnah), ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহর লাল নেহরু আর মহত্মা গান্ধীর অনেক বড় অবদান রয়েছে। অখিলেশ যাদব সংখ্যালঘু ভোটে থাবা বসাতে মহম্মদ আলি জিন্নাহকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বলে আখ্যা দিয়েছিলেন। যার জেরে ওনাকে নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়।

উল্লেখ্য, এর আগে উত্তর প্রদেশের উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য ইউপি ভোটের আগে আরও একটি বয়ান দিয়ে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন। সম্প্রতি তিনি বলেছিলেন, অযোধ্যা আমাদের হয়ে গিয়েছে, সেখানে মন্দির নির্মাণও শুরু হয়েছে। রামভক্তরা খুব খুশি। বাবা বিশ্বনাথের কাশীতেও করিডোর তৈরি করার কাজ শুরু হয়েছে। এবার মথুরায় ভগবান কৃষ্ণের জন্মভূমির পালা। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বিজেপি এবারের নির্বাচনে মথুরা আর কাশীকে ইস্যু বানিয়ে প্রচার চালাতে পারে।

[ad_2]