Press "Enter" to skip to content

অনুপ্রবেশ থেকে হামলা, সব রুখবে একটি হাতিয়ার! মারক ক্ষমতার শিকারি পাচ্ছে ভারত

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ ভারতীয় সীমান্তকে (Indian Borders) শত্রুদের হাত থেকে রক্ষা করা আর অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং হামলার জবাব দিতে ভারত (India) আমেরিকার (United State) থেকে ৩০টি MQ 9A প্রেডিটর ড্রোন (General Atomics MQ-9 Reaper) অধিগ্রহণ করতে চএলছে। আশা করা হচ্ছে যে, আগামী ডিসেম্বর মাসে দুই দেশের মধ্যে হতে চলা বৈঠকে এর ঘোষণা হতে পারে। আধিকারিকদের মতে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং আর বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর নিজেদের সমকক্ষদের সঙ্গে ওয়াশিংটনে সাক্ষাৎ করবেন। এই দ্বিপাক্ষিক বার্তার মধ্যে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা হতে পারে।

আফগানিস্তানে তালিবান শাসন আর চীনের আক্রমনাত্বক মনোভাবের বিরুদ্ধে প্রশান্ত মহাসাগরে ধীরে ধীরে দানা বাধা অশান্তির কথা মাথায় রেখে প্রেডিটর ড্রোনের অধিগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই বিষয়ে কথা বলার জন্য আমেরিকার আধিকারিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎও করেছেন। যদিও, ডিসেম্বর মাসে হতে চলা বৈঠকে এই বিষয়ে সরকারি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হওয়ার পরেই কিছু বলা যাবে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, তিন সেনাকে ১০টি করে ড্রোন দেওয়া হবে। যেহেতু ভারতীয় নৌসেনা আগে থেকেই দুটি প্রেডিটর ড্রোন পেয়েছে, সেহেতু এই চুক্তি ভারতীয় বায়ুসেনা আর ভারতীয় স্থলসেনার তত্ত্বাবধানে সম্পূর্ণ হবে।

চীনের বর্ধিত আক্রমনাত্বক মনোভাবের কথা মাথায় রেখে এই প্রতিরক্ষা চুক্তি ভারতের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। অন্যদিকে চীন আবার সশস্ত্র ড্রোন পাকিস্তানকে বিক্রি করেছে। ওই ড্রোন হাওয়া থেকে ১২টি মিসাইল লঞ্চ করতে সক্ষম।

প্রেডিটর ড্রোনের মাধ্যমে হাওয়া থেকে জমিতে হামলা করা সম্ভব হবে। আর এই ড্রোন বিভিন্ন প্রকারের মিসাইল আর বোমা দিয়ে শত্রুদের নাকানিচোবানি খাওয়াতে দক্ষ। সবথেকে বড় বিষয় হল, এই ড্রোন তিরিশ ঘণ্টার বেশি সময় আকাশে উড়তে সক্ষম।

[ad_2]