Press "Enter" to skip to content

“অবিলম্বে ঘর খালি করুন”- সরকারি বাংলো খালি করার নির্দেশ মুকুল রায়কে

একাধিক কর্মসূচির পরিকল্পনা নিয়ে মঙ্গলবার দিল্লিতে হাজির হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশের রাজধানীতে উড়ে গিয়ে থাকতে শুরু করেছেন পুরোনো সঙ্গী ের বাড়িতে। ওই বাড়িতেই একাধিক বিরোধী নেতার সঙ্গে বৈঠক সারছেন বসছেন মমতা। কিন্তু এবার সেই বাংলোর খালি করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয়

সাধারণত নিয়মানুযায়ী রাজ্যসভার সাংসদরা মাথাপিছু দুটি করে ‘গেস্ট অ্যাকমোডেশন’ পেয়ে থাকেন। এতদিন পর্যন্ত বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাসগুপ্তের গেস্ট অ্যাকমোডেশনেই সাউথ অ্যাভিনিউর ১৮১ নং বাংলোতে করতেন তাঁর অতিথি তথা প্রাক্তন মুকুল রায়। মুকুল ঘনিষ্ঠতার সূত্র ধরেই ওই বাংলোতে গিয়ে থাকতে শুরু করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এবার সেই বাড়িটিই অতি দ্রুত খালি করার জন্য বিজেপি রাজ্যসভা সাংসদ স্বপন দাসগুপ্তকে লিখিত চিঠি পাঠিয়ে কঠোর নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজ্যের গণ্ডি পেরিয়ে দেশের রাজনীতিতে মুখ হয়ে উঠতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরোধী ঐক্যের ভীত মজবুত করতেই দিল্লিতে হাজির হয়েছেন তিনি। দিল্লিতে হাজির হয়েই একাধিক বিরোধী নেতার সঙ্গে দেখা করে আলাপ পরামর্শ করার পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর। ইতিমধ্যে মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা নেতা কমল নাথের সঙ্গে একটি গোপন বৈঠক সেরে ফেলেছেন তৃণমূল নেত্রী।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বিজেপি ত্যাগ করার পরেও মুকুল রায় যে স্বপন দাসগুপ্তের বাড়িটি ব্যবহার করছেন, তা কার্যত বেআইনি এবং এ বিষয়টি মোটেও ভালোভাবে মেনে নিতে পারছে না কেন্দ্রীয় সরকার৷ ঠিক সেই উদ্দেশ্যেই সালের পাবলিক প্রেমিসেস আইনের উল্লেখ করে বাংলোটি তড়িঘড়ি খালি করার নির্দেশনা পাঠিয়েছে কেন্দ্র৷