Press "Enter" to skip to content

অভিষেক, মমতার হুঁশিয়ারিই সার! পুরভোটে তুমুল অশান্তি! বোমাবাজিতে উড়ল একজনের পা

[ad_1]

কলকাতাঃ শুরু হয়েছে কলকাতার পুরসভার নির্বাচন। সকাল থেকেই কলকাতা জুড়ে বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনা সামনে আসছে। কোথাও বিরোধী এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ, আবার কোথাও সিসিটিভি বন্ধ করে ভোট করানোর অভিযোগ উঠেছে শাসক দলের বিরুদ্ধে।

আর এরই মধ্যে শিয়ালদহের টাকি স্কুলের সামনে বোমাবাজির ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বিস্ফোরণে এক যুবকের পা উড়ে গিয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। এছাড়াও খান্না হাইস্কুল ও বেলেঘাটাতেও বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে।

অন্যদিকে, ১০২ নম্বর ওয়ার্ডে ভোট দিতে না দেওয়ার অভিযোগ তুলেছে সিপিএম। তাঁদের অভিযোগ তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ভোটারদের ভোট দিতে বাধা দিচ্ছে। সিপিএমের তরফ থেকে রাস্তা অবরোধ করে প্রতিবাদও জানানো হচ্ছে।

অন্যদিকে বিজেপির প্রার্থী মীনাদেবী পুরোহিতের উপর হামলা করে তাঁর ব্লাউজ ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। তড়িঘড়ি রিপোর্ট তলব করা হয়েছে। বলে দিই, এর আগে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় কর্মীদের হুঁশিয়ারি দিয়ে শান্তিপূর্ণ ভোট করানোর বার্তা দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই হুঁশিয়ারি কে কারও কান পর্যন্ত যে যায়নি সেটা আজকের চিত্র দেখেই বোঝা যাচ্ছে।

ভোটের আগে বিজেপির বিধায়ক তথা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন যে, ভোটে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে বিজেপির সমস্ত বিধায়করা নির্বাচন কমিশনের সামনে ধর্নায় বসবে। শুভেন্দুবাবুর এই হুঁশিয়ারির পর কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে নির্বাচন কমিশনের সামনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা মজবুত করা হয়েছে। গড়ে তোলা হয়েছে ব্যারিকেড।

[ad_2]