Press "Enter" to skip to content

অমিত শাহের খেলা এখনো বাকি!! মাস্টারপ্ল্যান প্রয়োগ করে কর্নাটকে সরকার গঠন করছে বিজেপি।

ের রাজনীতিতে একটা জিনিস অবশ্যই করতে হবে যে কংগ্রেস বা অন্যান দলের চিন্তাভাবনা যেখানে সীমিত হয়ে যায়, অমিত শাহের চিন্তাভাবনা সেখান থেকে শুরু হয়। আর এই কারণের জন্যই দেশের সব থেকে পুরানো দল কংগ্রেস যা করে দেখতে পারেনি তাই বর্তমানে করে দেখাচ্ছে ি। অমিত শাহের সভাপত্তিত্বেই বিজেপি বিশ্বের সবথেকে বড়ো দল এ পরিণত হয়েছে

আপনাদের জানিয়ে রাখি নির্বাচনের ফলাফল বেরিয়ে এলেও , কোন দল কর্নাটকে সরকার গঠন করবে সেই নিয়ে মানুষের মনে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কারণ বিজেপি সবথেকে বেশি ভোট পেলেও মাত্র কিছুর জন্য বহুমত পাইনি অন্যদিকে কংগ্রেস, JDS এর সাথে হাত মিলিয়েছে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি কংগ্রেস বিজেপিকে সরকার বানাতে না দেওয়ার জন্য JDS কে একটা। বিশেষ অফার দিয়েছে যাতে কংগ্রেসের মধ্যেই ক্ষোপ সৃষ্টি হয়েছে। কংগ্রেস তাদের থেকে ছোট দল JDS কে মুখ্যমন্ত্রী পদের প্রস্তাব দিয়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি কংগ্রেস, JDS এর থেকে বেশি ভোট পেয়েছে তা সত্ত্বেও JDS এর কুমার স্বামীকে মূখ্যমন্ত্রী পদের অফার দিয়েছে কারণ তারা বিজেপিকে সরাতে চাইছে এবং নিজেদের অস্তিত বাঁচাতে চাইছে।

আপনাদের এটাও জানিয়ে রাখি JDS এই প্রস্তাব গ্রহণও করেছে। এখন আপনারা ভাববেন যে তাহলে কর্নাটকে JDS ও কংগ্রেস মিলে সরকার গঠন করবে কিন্তু আসলে কর্নাটকে বিজেপি সরকার গঠন করবে কারণটা(অমিত শাহের রাজনৈতিক চিন্তাভাবনা অনেক উপরে) আপনাদের আগেই জানিয়েছি।

আসলে রাজ্যপাল বিজেপির ইদুরাপ্পাকে ডেকে সরকার বানানোর জন্য আহ্বান করেছেন তবে শর্ত এই যে বিধানসভায় তাদেরকে সংখ্যাগরিষ্ঠ প্রমান করতে হবে। এখন মজাদার বিষয় এই যে কংগ্রেস ও JDS এর বেশকিছু বিধায়ক নিখোঁজ রয়েছেন।

কংগ্রেস ব্যাঙ্গালুরুর এক নামী হোটেলে তাদের সমস্থ বিধায়কদের ডেকে পাঠিয়েছিলেন যাতে তারা কেউ বিজেপির দিকে না যায় সেটা বোঝানোর জন্য কিন্তু সেই মিটিংএ ৭৮ জনের মধ্যে ৬৬ জন্য বিধায়ক উপস্থিত ছিলেন বাকি ১২ জন বিধায়কের কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। এর অর্থ আপনারা পরিষ্কার বুঝতেই পারছেন। অন্য দিকে JDS এর ৮ জন্য বিধায়ক অমিত শাহের হাতে রয়েছেন। আপনাদের আরো জানিয়ে রাখি এই বিধায়কদের বেশিরভাগ লিঙ্গায়েত সম্প্রদায় থেকে এসেছেন। অর্থাৎ ২০ জন বিধায়কের মধ্যে ৭,৮ জন বিধায়ক বিজেপিতে টেনে আনা অমিত শাহের কাছে তেমন কোনো ব্যাপারে না।

এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা, বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমান করে বিজেপি কর্ণাটকের সরকার গঠন করবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.