Press "Enter" to skip to content

অসম নিয়ে বয়ানবাজি করছিল ইসলামিক দেশের সংগঠন OIC, ‘নাক গলাবেন না” বলে দিল ভারত

নয়া দিল্লিঃ  অসমের (Assam) ঘটনা নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছিল ী দেশগুলোর সংগঠন অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (OIC)। সেই মন্তব্যের এবার কড়া ভাষায় পালটা জবাব দিল (india)। এই বিষয়ে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী বলেছেন, ‘এটা বলতে খুবই খারাপ লাগছে যে, আবারও ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলাচ্ছে OIC। তাঁরা ভারতের একটি খারাপ ঘটনাকে তুলে ধরে বিভ্রান্তকর তথ্য ছড়াচ্ছে’।

এই বিষয়ে ভারত জানিয়েছে, ‘ভারতের আভ্যন্তরীন বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অধিকার OIC-র নেই। ব্যক্তিগত প্ল্যাটফর্মকে ব্যক্তিগত স্বার্থের জন্য ব্যবহার করতে দেওয়া ঠিক নয়। সেইসঙ্গে এই সমস্ত ভিত্তিহীন বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করছে ভারত সরকার। আশা করব, ভবিষ্যতে এই ধরনের আর কোন মন্তব্য কানে আসবে না’।

https://platform.twitter.com/widgets.js

বিষয়টা হল, আফগানিস্তান, চীন, সিরিয়া এবং পাকিস্তানের মুসলমানদের উপর অত্যাচারের বিষয়ে অন্ধ এবং নির্বাচক দর্শকের ভূমিকায় আচরণ করলেও, ভারতের মুসলিের নিয়ে বেশি উদ্বিগ্নতা দেখায় এই OIC। অসমের বিষয়ে OIC-র সাধারণ সচিবালয় ট্যুইট করে সেই ঘটনার নিন্দা প্রকাশ করেছিল।

১৯৬৯ সালের ২৫ শে সেপ্টেম্বর তৈরি হওয়া এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হল পাকিস্তান। তবে ভারত এই সংগঠনের সদস্য নয়। সদস্য হওয়ার দরুন প্রথম থেকেই এই সংগঠনকে ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করেছে পাকিস্তান। সেই কারণে বহুবার এই সংগঠন ভারতের একাধিক আভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে মন্তব্যও করেছে।