Press "Enter" to skip to content

অসাধারণ!! তিন বছরের মধ্যে ১৮,০০০ গ্রামে আচ্ছেদিন আনলো নরেন্দ্র মোদীর সরকার।

কেন্দ্রে যখন থেকে বিজেপি সরকার এসেছে তখন থেকে মোদীজি নেতৃত্বে ভারতবর্ষ কিছু না কিছু রেকর্ড গড়েই চলেছে। দেশেকে বিশ্বের শ্রেষ্ট স্থানে পৌঁছানোর জন্য মোদী সরকার ক্রমাগত কাজ করেই চলেছে। সম্প্রতি মোদী সরকারের কাজের উপর আরেকটা নতুন রেকর্ড সামনে এসেছে যা জানার পর আপনিও মোদী সরকারের উপর গর্বিত হবেন। আপনাদের জানিয়ে রাখি, মোদী সরকার কেন্দ্র আসার পর থেকে দেশকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটা বিশেষ লক্ষ্য ঠিক করেছিল।

মোদী সরকার দেশের সমস্থ গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছানোর জন্য এইরকম একটা লক্ষ্য নিয়েছিল। মোদী সরকার ‘দীন দয়াল উপাধ্যায় জ্যোতি যোজনা’ প্রকল্পের মাধ্যমে ১৮,৪৫২ টি বিদ্যুৎহীন গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছানোর যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সেই লক্ষ্যের মধ্যে আর মাত্র ৪৩৩ টি গ্রামেই বিদ্যুৎ পৌঁছানো বাকি রয়েছে। সেই গ্রামগুলিও খুব তাড়াতাড়ি বিদ্যুতিক করন করার কাজ চলছে। জানলে অবাক হবেন, মোদী সরকার যেসব গ্রামগুলিতে আলো পৌঁছেছে সেইসব গ্রামে আজ স্বাধীনতার ৭০ বছর পর আলো পৌঁছেছে। এটা খুবই দুর্ভাগ্যের বিষয় যে কংগ্রেস এত বছর দেশে এককভাবে শাসন করার পরেও এত গ্রামকে আলোর মুখ দেখাতেপারেনি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২০১৫ সালে ১৫ আগস্ট এর দিন দেশকে সম্বোধিত করার সাথে সাথে ১০০০ দিনের মধ্যে ১৮৪৫২ টি গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছানোর কথা বলে ছিলেন। আপনাদের জানিয়ে রাখি মোদী সরকার মে মাসে উনার সেই লক্ষ্য পূরণ করতে চলেছেন। বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের পোর্টালের অনুযায়ী ১৮৪৫২ টি গ্রামের মধ্যে ১৬৭৮৩ টি গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছানো সম্পূর্ণ হয়েছে। এই বিদ্যুৎ পৌঁছানোর সময় এমন কিছু গ্রাম সামনে এসেছে যেখানে বর্তমানে কোনো মানুষ বাস করেন না বা গ্রামটি শুধু মাত্র গোচারণ ক্ষেত্র হিসেবে ব্যাবহৃত হয়। সমস্থ কিছু হিসেব করে বর্তমানে মাত্র ৪৩৩ টি গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছানো বাকি রয়েছে যা মে মাসের মধ্যেই সম্পূর্ণ হবে। মোদী সরকারের এই কাজ যে এইসব গ্রামবাসীদের(যারা স্বধীনতার এত বছর পর আলোর মুখ দেখলো) কাছে ‘আচ্ছে দিন’ তা বলার আর অপেক্ষা রাখে না।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.