Press "Enter" to skip to content

আজম খানের প্রতিজ্ঞা, রাম মন্দিরের ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ না জানালে সরযূ নদীতে নেবেন জল সমাধি

াঃ রাম নগরী অযোধ্যায় (Ayodhya) ৫ই আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র (PM Narendra ) মোদী ভব্য রাম মন্দিরের ভিত্তি স্থাপন করবেন। আর এই অনুষ্ঠানের আগে শনিবার করসেবক মঞ্চের সর্বভারতীয় সভাপতি আজম খান (Azam Khan) অযোধ্যা পৌঁছে এক দৃঢ় প্রতিজ্ঞা নিলেন। উনি জানিয়েছেন যে, যদি ৫ই আগস্ট প্রধানমন্ত্রী ভূমি পূজনে ওনাকে আমন্ত্রণ না জানানো হয়, তাহলে তিনি ওই দিনই সরযূ নদীতে জল সমাধি নেবেন। ওনার হিসেবে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য করা আন্দোলনে উনি অনেক বড় ভূমিকা পালন করেছেন। আর উনি ভগবান রামকে মানেন এবং ভগবান রামের পরম ভক্ত।

উনি জানান, ভগবান রামকে কোন ধর্ম অথবা জাতিতে বেঁধে রাখা যাবে না। আর এরজন্য এই পুণ্য তিথিতে উনি অংশ নিয়ে রাম মন্দির ভূমি পূজনের সাক্ষী হতে চান। অযোধ্যয় পৌঁছে রাষ্ট্রবাদী আজম খান বলেন, ভগবান রামকেই তিনি নিজের আরাধ্য দেবতা হিসেবে মানেন। যেমন ভাবে ভগবান রাম এবং ভ্রাতা লক্ষণ সরযূ নদীতে জল সমাধি নিয়েছিলেন, সেই ভাবেই তিনি জল সমাধি নেবেন। আজম খান অযোধ্যায় রাম লালার দর্শন করেন এবং রাম মন্দির আন্দোলনের পুরোধা স্বর্গীয় মহন্ত রামচন্দ্র দাস পরমহংসের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন।

মুসলিম করসেবক মঞ্চের সর্বভারতীয় সভাপতি আজম খান

উল্লেখ্য, ৫ই আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অযোধ্যায় ভব্য রাম মন্দিরের ভিত্তি স্থাপন করবেন। রাম মন্দিরের ভিত্তি স্থাপন এবং ভূমি পূজনের এই পবিত্র অনুষ্ঠানে রাম মন্দির আন্দোলনের সাথে যুক্ত সবাই অংশ হতে চান। কিন্তু করোনার কারণে শ্রীরাম জন্মভূমি ট্রাস্ট খুবই কম মানুষকে আমন্ত্রিত করেছে।

করোনা মহামারীর কারণে এই পবিত্র অনুষ্ঠানে কেবল মাত্র ২০০ জন অতিথিই অংশ গ্রহণ করবেন বলে জানা যাচ্ছে। আজ ের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ অযোধ্যায় গিয়ে রাম মন্দির ভূমি পূজন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেন।