Press "Enter" to skip to content

আজাদী চেয়ে উপদ্রব করছিল কট্টরপন্থীরা, এক যুবক গুলি চালিয়ে বললো – “এই নে আজাদী, হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ”

এর বিরোধের নামে দেশের নানা জায়গায় উৎপাত শুরু হয়েছে। অনেকে কট্টরপন্থী আজাদী শ্লোগান তুলে দেশবিরোধী গতিবিধিতেও লিপ্ত হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বেশকিছু জন হিন্দুদের থেকে আজাদী, হিন্দুত্ব থেকে আজাদীর মতো শ্লোগানও তুলেছে। জামিয়া ইসলামিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে এখন একটা বড়ো সামনে এসেছে। জামিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিকটে অনুষ্ঠিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (CAA) এর বিক্ষোভের সময় এক ব্যক্তি প্রকাশ্যে বন্দুক নিয়ে প্রবেশ করে এবং গুলি চালিয়ে দেয়। এ সময় গুলি চালানোর সময় ‘ইয়ে লো আজাদী’ বলে।

ঘটনাটি দুপুর দেড় টার সময় ঘটে। গুলি চলার পরিস্থিতি বিশৃঙ্খ হয়ে পড়ে। সেখানে অবশ্য বড়ো সংখ্যায় পুলিশ ও মিডিয়ার লোকজন উপস্থিত ছিল। পুলিশ ও যুবকটিকে করে। গুলি খেয়ে একজন ঘায়েল হয়েছে বলেও খবর সামনে আসছে। তবে যুবকটি কে, বা কেন তার মধ্যে আক্রোশ তৈরি হয়েছে তার বিস্তারিত সামনে আসেনি।

প্রসঙ্গত জানিয়ে দি,CAA ও NRC এর বিরোধের নামে বহু স্থানে দেশবিরোধী কর্মকান্ড চলছে। শাহীন বাগে ৫০০ টাকার পরিবর্তে মুসলিম মহিলাদের একত্র করে PFI ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। CAA এর বিরোধিতা করতে গিয়ে সারজিল ইমাম যে বিবৃতি দিয়েছিল তা এখন কারোর থেকে লুকিয়ে নেই।

https://platform.twitter.com/widgets.js

ছাত্র সারজিল ইমাম ৫ লক্ষ মুসলিমকে একত্র হওয়ার ডাক দিয়েছিল আসামকে সহ উত্তরপূর্বকে ভারত থেকে আলাদা করার জন্য। শিলিগুড়ি করিডোরকে ব্লক করে ভারতকে ভাঙার পুরো ষড়যন্ত্র করেছিল সারজিল ইমাম। সম্ভবত এই সমস্তকিছুর জন্যেই আজাদী গ্যাং এর উপর কিছুজনের আক্রোশ চরম সীমায় পৌঁছে গেছে।