Press "Enter" to skip to content

আবারও শিরোনামে বাংলা! এবার কালনায় বাড়িতে ঢুকে নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ


বর্ধমানঃ গতকালই পূর্ব বর্ধমানের কালনার নাদনঘাটে এক আদিবাসী মহিলাকে বাড়ির সামনে থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধান ক্ষেতে গণধর্ষণের মামলা সামনে এসেছিল। আর তাঁর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই কালনায় এবার নাবালিকাকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ। ঘটনার পর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

জানা গিয়েছে যে, পূর্ব বর্ধমানের সাতগাছিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের একটি গ্রামে কীর্তনের আসর বসেছিল। পরিবারের সদস্যরা কীর্তন দেখতে যায় আর বাড়িতে একা ছিল নাবালিকা। সেই সুযোগেই নাবালিকার উপর নির্যাতন চালায় এক যুবক।

ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই অভিযুক্ত যুবককে পেটায় নির্যাতিতার মা। এই ঘটনার পিছনে রাজনৈতিক যোগ নিয়ে শুরু হয়েছে চাপানউতোর। অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতারের দাবি নিয়ে তৃণমূল এবং বিজেপি দুই পক্ষই থানায় বিক্ষোভ দেখায়। বিজেপির তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে, অভিযুক্ত তৃণমূলের কর্মী। যদিও সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে শাসক দল। পাল্টে তাঁরা বিজেপির উপর একই দোষ চাপিয়েছে।

জানিয়ে দিই, দুদিন আগে কালনায় বিজেপির বুথ সভাপতির স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করার অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূলের এক নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনার পর বিজেপির কর্মীরা মিলে অভিযুক্ত বেধড়ক মারধোর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তৃণমূলের ওই নেতাকে কালনা মহাকুমা হাসপাতালে ভরতি করানো হয়েছিল।