Press "Enter" to skip to content

আমরা উইঘুর মুসলিমদের উচিৎ শিক্ষা দিচ্ছি, জানালেন চীনা রাষ্ট্রপতি জিনপিং


নয়া দিল্লীঃ চীনে () নিয়ে গোটা বিশ্বের মাধ্যম এবং নানান এজেন্সি রিপোর্ট দিচ্ছে যে, তাঁদের উপর অত্যাচার হচ্ছে। এলাকায় মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে অনেক রিপোর্ট সামনে এসেছে। কিন্তু সমস্ত দাবি নস্যাৎ করে চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং () জানিয়ে দিয়েছেন যে, শিনজিয়াং প্রান্তের পশ্চিমি এলাকায় থাকা উইঘুর মুসলিমদের লাগাতার উন্নতি হচ্ছে। উনি এও বলেন যে, সরকার ওই এলাকায় উইঘুর মুসলিমদের উচ্চ শিক্ষা প্রদান করছে।

চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং শিনজিয়াং প্রান্তে উইঘুর মুসলিমরা সুখেই আছে বলে দাবি করছেন। কিন্তু সেখানে প্রায় ৮০ লক্ষ উইঘুর মুসলিমদের শিক্ষিত আর সভ্য বানানোর নামে অমানবিক অত্যাচার চলছে বলেই খবর। এমনকি সেই এলাকায় মুসলিমদের পবিত্র ধর্মস্থল ভেঙে শৌচাগার বানানোরও অভিযোগ উঠেছে চীনা আধিকারিকদের বিরুদ্ধে।

সংযুক্ত রাষ্ট্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, শিনজিয়াং প্রান্তে কমপক্ষে ১০ লক্ষ মুসলিমদের জোর করে কাজ করানোর জন্য ক্যাম্পে বন্দি করে রাখা হয়েছে। যদিও, এরপর চীন লাগাতার উইঘুর মুসলিমদের সাথে প্রতারণা করার কথা অস্বীকার করে চলেছে। চীন জানায় যে, ওই এলাকায় বিরোধী শক্তিরা মাথাচারা দেওয়ার চেষ্টা করছে তাঁদের সন্ত্রাসবাদের পথে যাওয়া থেকে রোখার জন্য ভোকেশনাল ট্রেনিং দেওয়ার জন্য ট্রেনিং ক্যাম্পে রাখা হয়েছে। আর এরমধ্যে চীনের রাষ্ট্রপতির ওই ক্যাম্পে উইঘুরদের খুশি থাকা আর তাঁদের উচ্চ শিক্ষা দেওয়ার বয়ানের পর মহলে উইঘুরদের নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে।