Press "Enter" to skip to content

আমরা লড়াই না করলে এটুকুও পেতেন না, পিএম কিষাণ নিয়ে বাংলার চাষিদের বিস্ফোরক চিঠি মমতার

[ad_1]

কলকাতাঃ পিএম কিষাণ (PM Kisan) প্রকল্প নিয়ে এর আগেই বিস্তর রাজনীতি হয়েছে এরাজ্যে। কেন্দ্রের তরফ থেকে বারবার অভিযোগ করা হয়েছে যে, রাজ্য সরকার বাংলার (West Bengal) কৃষকদের কেন্দ্রের প্রকল্পের সুবিধা নিতে দিচ্ছে না। অন্যদিকে, রাজ্য একবার বলেছিলে যে, রাজ্য সরকারের তরফ থেকে রাজ্যের কৃষকদের আর্থিক সাহায্য করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের সুবিধা না দিলেও চলবে। যদিও, কেন্দ্র বারবারই রাজ্যের কৃষকদের এই আর্থিক সুবিধা দেওয়ার জন্য বারবার উদ্যোগী হয়েছে। কিন্তু রাজ্যের তরফ থেকে কৃষকদের তালিকা না মেলায় সেই প্রকল্পটি এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছিল না।

এরপরই রাজ্য একুশের নির্বাচনের আগে হঠাৎই সিদ্ধান্ত বদল করে বাংলার কৃষকদের পিএম কিষাণ প্রকল্পের আওতায় আনার কথা ঘোষণা করে। একুশের নির্বাচনের বিজেপির প্রতিশ্রুতি ছিল, তাঁরা জিতলে বাংলার কৃষকদের বকেয়া সহ সম্প্রতি কিস্তি সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেওয়া হবে। বিজেপি ক্ষমতায় না আসায় বকেয়া টাকা না মিললেও সম্প্রতি কিস্তিগুলো পাচ্ছে রাজ্যের কৃষকরা।

অগাস্ট মাসের প্রথম কিস্তি আজ সোমবার কৃষকদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি পাঠিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের প্রায় ২০ কোটি কৃষকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আজ এই টাকা ঢুকেছে। কিন্তু এই টাকা ঢোকার দু’দিন আগেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের কৃষকদের উদ্দেশ্যে চিঠি লেখেন। ওই চিঠি জেলা শাসকের মাধ্যমে বাংলার প্রতিটি কৃষকের হাতে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। চিঠিতে এটা বোঝানো হচ্ছে যে, কেন্দ্রের প্রকল্পের থেকে বাংলার কৃষকবন্ধ প্রকল্প কতটা কার্যকারী।

চিঠিতে এও বলা হয়েছে যে, বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে কেন্দ্র বাংলার কৃষকদের টাকা দিচ্ছিল না। রাজ্য সরকার লড়াই করে সেই টাকা আদায় করেছে এবং সেই লড়াইয়ের জন্য কৃষকরা এখন পিএম কিষাণ পাচ্ছেন। চিঠিতে লেখা হয়েছে, আপনাদের প্রাপ্য ছিল ১৮ হাজার টাকা। কিন্তু আপনারা তাঁর থেকে অনেক কম পাচ্ছেন। আপনারা এটুকুও পেতেন না, যদি আমরা লড়াই না করতাম। তবে চিন্তা করবেন না, আপনাদের প্রাপ্য টাকা আদায়ের জন্য আমরা লড়াই করব।

[ad_2]