Press "Enter" to skip to content

‘আমাকে গুলি মারবেন না বাবুজি” আত্মসমর্পণ করতে গিয়ে ইউপি পুলিশের পায়ে ধরে কাতর আবেদন গুণ্ডা নইমের

লখনউঃ ের () কড়া নির্দেশের পর উত্তর প্রদেশে পুলিশের এনকাউন্টারের ভয়ে অপরাধীদের মধ্যে আতঙ্কের মহল সৃষ্টি হয়েছে। আর সেই কারণে অনেক অপরাধী ধরা পড়ার ভয়ে নিজেই স্যারেন্ডার  করছে রবিবার উত্তর প্রদেশের সম্ভল জেলায় এমনই কিছু দৃশ্য দেখা গিয়েছে। সেখানে এক অপরাধী কাতর আবেদন করে পুলিশের সামনে আত্মসমর্পণ করে। স্যারেন্ডার করতে যাওয়ার সময় তাঁর গলায় একটি নোটিশও ঝোলানো ছিল।

https://platform.twitter.com/widgets.js

https://platform.twitter.com/widgets.js

ওই নোটিশে লেখা ছিল, ‘আমি ভুল কাজ করেছি। সম্ভল পুলিশকে আমি ভয় পাই। আমি আমার ভুল স্বীকার করছি। আমি অপরাধী আর আত্মসমর্পণ করতে এসেছি। আমাকে গুলি মারবেন না দয়া করে।” মিডিয়া রিপোর্টস অনুযায়ী, নইম নামের এই অপরাধী গলায় নোটিশ ঝুলিয়ে গিয়ে থানার এসএইচও এর পায়ে ধরে ক্ষমা চায়। আর বলে, ‘আমাকে গ্রেফতার করে নাও, আমার বাড়িতে ছোট ছোট বাচ্চা আছে।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

এই ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল () হয়েছে। ভিডিওতে নইমকে পুলিশ আধিকারিকের পায়ে ধরে ক্ষমা চাইতে দেখা যাচ্ছে। নইম বারবার পুলিশের হাত পা ধরে বলছে, আমাকে ক্ষমা করে দাও বাবু। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এই ঘটনা উত্তর প্রদেশে সম্ভল এর নাখাশা থানায় হয়েছে। নইমের বিরুদ্ধে গোরু পাচার থেকে শুরু করে গ্যাংস্টার আইনে অনেক মামলা দায়ের আছে। সে অনেকদিন ধরেই পলাতক ছিল, আর পুলিশ তাকে হন্যে হয়ে খুঁজছিল। পুলিশ নইমের উপর ১৫ হাজার টাকার পুরস্কারও ঘোষণা করেছিল।

https://platform.twitter.com/widgets.js

নইমকে ধরার জন্য তাঁর বাড়ি আর পরিজনদের উপর অনেকদিন ধরেই চাপ সৃষ্টি করছিল পুলিশ। কিন্তু চালাক নইম বারবার পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালাতে সক্ষম হয়ে যেত। কিন্তু গতকাল বিপদ আসন্ন ভেবে নইম পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে আর হাত পা ধরে ক্ষমা চায়।