Press "Enter" to skip to content

আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার পর হুঁশিয়ারি দিল রুশ! বিপদের মুখে পড়তে পারে ভারত চীন

[ad_1]

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধের মাঝে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশ রাশিয়ার ওপর নানা ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। আমেরিকার এই পদক্ষেপে ক্ষুব্ধ হয়ে রুশ মহাকাশ সংস্থা রসকোসমস-এর প্রধান দিমিত্রি রোগজিন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এবং স্পষ্ট ভাষায় হুমকি দিয়েছেন যে আমেরিকা কি চায় রাশিয়ার আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) ভারত-চীন বা ইউরোপের মাটিতে ফেলে দিক। যদি তারা সেটা চাই তাহলে তাদের সিদ্ধান্ত নিতে বেশিক্ষণ সময় লাগবে না।

24 ফেব্রুয়ারী রাশিয়া ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করার সাথে সাথে কয়েক ঘন্টা পরে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়ে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা রাশিয়ার প্রযুক্তিগত অগ্রগতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে এবং এর মহাকাশ কর্মসূচিকেও অনেক ক্ষতি করবে।

ঠিক তার পরেই রোগজিন টুইট করেন যে আপনি কি প্রতিরোধী স্পেস মাইক্রোইলেক্ট্রনিক্সে আমাদের অ্যাক্সেস ব্লক করতে চান? আপনারা ইতিমধ্যে 2014 সালে আনুষ্ঠানিকভাবে এটি করেছেন। এতে আমাদের কিচ্ছু যায় আসে না। আপনি ভালো ভাবে জানেন, আমরা এখনও আমাদের নিজস্ব মহাকাশ যান তৈরি করেছি। আর আমরা আমাদের দেশেই প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি তৈরি করে তা করব। আপনি কি বিশ্বের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য রাশিয়ান রকেটে তাদের মহাকাশযান উৎক্ষেপণ থেকে আটকাতে চান?

https://platform.twitter.com/widgets.js

রোগজিন আমেরিকাকে একইভাবে জবাব দিয়ে বলেছেন যে এটি যদি নিষিদ্ধ করা হয় তবে আইএসএস (আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন) তাদের স্পেস কে কক্ষপথ থেকে বের করে দেবে। কারণ এর নিয়ন্ত্রণ শুধুমাত্র রাশিয়ার হাতে। রোগজিন বলেছেন যে আমেরিকা যদি আইএসএস স্টেশনে কোনও ধরণের সহযোগিতা বন্ধ করে তবে এটি নিয়ন্ত্রণ হারাবে এবং আমেরিকা বা ইউরোপে পড়বে। 500 টন ওজনের এই কাঠামো ভারত বা চীনের উপরও পড়তে পারে। আর এর জন্য কি আপনি প্রস্তুত? এইভাবে বাইডেন কে তিনি হুমকি দেন যেন তাদের উপর কোনো নিষিদ্ধ লাগানোর আগে আমেরিকা যেন দুবার চিন্তা করে।

[ad_2]