Press "Enter" to skip to content

আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বললেন মহান নেতা, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চাইলেন সাহায্য


ওয়েব ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) বিরুদ্ধে যুদ্ধে ের () সাহায্য চাওয়া আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) ভূয়সী করে ওনাকে মহান নেতা (Great Leader) বলেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার (USA) মিডিয়াকে ভারতের থেকে (Hydroxychloroquine) চাওয়ার বিষয়ে কথা বলেন। উনি বলেন, আমরা ওই ওষুধের লক্ষ লক্ষ ডোজ কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উনি বলেন, যদিও আমাদের কাছে এখনো এই ওষুধ মজুত আছে। আমি এই ওষুধের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে কথা বলি। আমি ওনাকে জিজ্ঞাসা করি, উনি কি এই ওষুধ আমাদের দেবেন? এখন আমাদের আশা হল, ভারত আমাদের এই ওষুধ খুব শীঘ্রই দেবে। ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মহান নেতা। ভারত নিজেদের প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখে এই ওষুধের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। কিন্তু আমার আশা, শীঘ্রই ভারত থেকে ভালো খবর আসবে।

আরেকদিকে, ভারত (India) করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) বিরুদ্ধে লড়াই করা আমেরিকার সমেত অনেক কয়েকটি দেশের সাহায্যের জন্য ওষুধ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। আর এই কারণে আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের খুব প্রশংসা হচ্ছে। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের পর এবার ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি জাইর বোলসোনারো () করোনায় সংক্রমিতদের চিকিৎসায় ইফেক্ট ফেলা ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন (Hydroxychloroquine) এর সাপ্লাইয়ের জন্য ভারতকে ধন্যবাদ জানিয়েছে।

সবথেকে অবাক করা ব্যাপার হল, ব্রাজিল ভারতের এই সাহায্যের তুলনা রামায়ণের হনুমান দ্বারা নিয়ে আসা সঞ্জীবনী বুটির সাথে করেছে। ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি জাইর বোলসোনারো প্রধানমন্ত্রী ) একটি চিঠি লিখে ওনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ওই চিঠিতে ভারত আর ব্রাজিলের বন্ধুত্ব আর ভারতের তরফ থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি জাইর বোলসোনারো লেখেন, ‘করোনা ভাইরাসের মহামারীর সময় ভারত যেভাবে ব্রাজিলের সাহায্য করছে, এটা একদম পুরাণের রামায়ণ কালের মতো। তখন যেমন হনুমান জি প্রভু রামের ভাই লক্ষণের জন্য সঞ্জীবনী বুটি নিয়ে এসেছিলেন, এখন ভারত ঠিক তেমনই করলো।”