Press "Enter" to skip to content

আরও বড় ঝটকা খেলো চীন! ভারতের পর এবার আমেরিকাও ব্যান করছে চাইনা অ্যাপ


নয়া দিল্লীঃ ের (India) ডিজিট্যাল স্ট্রাইক করার পর এবার আমেরিকাও (America) চীনের (China) কিছু অ্যাপ ব্যান করার কথা চিন্তা করছে। আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পিও বলেন, আমেরিকার নিশ্চিত রুপে ব্যান করার প্রস্তুতি নিচ্ছে, আর ওই অ্যাপের মধ্যে চীনের বিখ্যাত অ্যাপও আছে। মাইক পম্পিওর () এই বয়ানে বড়সড় ঝটকা খেলো চীন।

এর আগে ভারত চীনের ৫৯ টি অ্যাপ ব্যান করেছে। তারফলে বেজিং এর মাথায় আকাশ ভেঙে পড়েছিল। চীনের ওই অ্যাপ গুলো আবারও চালু করার জন্য বারবার ভারত সরকারের কাছে তাদের সিদ্ধান্তে বদল আনার আবেদন করছি কোম্পানি গুলো। কিন্তু ভারত সরকার নিজেদের সিদ্ধান্ত অটল।

প্রসঙ্গত, টিকটকের জনপ্রিয়তা মূলত ভাগ হয়ে যাচ্ছে চিঙ্গারি ও রোপোসোর মধ্যে। রোপোসোর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ১ দিনেই ১ কোটি মানুষ ডাউনলোড করবে বলে আশা করছে রোপোসো।অ্যাড টেক ইউনিকর্ন ইনমবি প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও নবীন তিওয়ারি দাবি করেছেন যে শেয়ারিং অ্যাপটি রোপোসো কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ১০ গুন লোক ডাউনলোড করেছে। এটি ভারতীয়দের দ্বারা চাইনিজ অ্যাপগুলি আনইনস্টল করার কারণে। ভারতীয়রা টিকিটলক, শেয়ারটাইট, ক্যামস্ক্যানার, ইউসি নিউজ, ওয়েচ্যাট, হ্যালো সহ অনেকগুলি অ্যাপ্লিকেশন দ্রুতই আনইনস্টল করেছে।

পাশাপাশি চিঙ্গারির উদ্যোক্তা সুমিত ঘোষ দাবি করেছে, “অ্যাপে প্রতি মিনিটে প্রায় 10,000 ব্যবহারকারী রয়েছেন। প্রতি ঘন্টা 3 মিলিয়ন ভিডিও স্যুইপ করা বা দেখা হচ্ছে। গত ২৪ ঘন্টা ২ মিলিয়ন ভিডিও দেখা হয়েছে। প্রতি ঘন্টা 90,000 নতুন ব্যবহারকারী অ্যাপ্লিকেশনটিতে যোগদান করছে” সহজেই এর থেকে এই প্ল্যাটফর্মটির জনপ্রিয়তা যে কি হারে বাড়ছে বোঝা যাচ্ছে।

গুগল অ্যানালিটিক্সের যে তথ্য টুইটারে সুমিত ঘোষ শেয়ার করেছেন তাতে আশ্চর্য হতে হয়। ব্যবহারকারীরা কেবল ভারত নয়, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, সিঙ্গাপুর, এমনকি মার্কিন মুলুকেও বাড়ছে জনপ্রিয়তা।