Press "Enter" to skip to content

আরিয়ানকে দেখতে গিয়েও চুরিচামারি, মোবাইল খোয়ালেন অজস্র শাহরুখ ভক্ত

[ad_1]

মুম্বাইঃ এমাসের ২ তারিখে NCB-র হাতে মুম্বাইয়ের প্রমোদতরীতে পার্টি করার সময় মাদক কাণ্ডে গ্রেফতার হন শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) ছেলে আরিয়ান খান (Aryan Khan)। তারপর থেকেই তাঁর স্থায়ী ঠিকানা মন্নত থেকে বদলে যায় আর্থার রোড জেল। দীর্ঘ ২৭ দিন তাঁকে কড়া পাহারার মধ্যে জেলেই কাটাতে হয়। জেলে তআরিয়ানের নামও পরিবর্তন হয়ে যায়। জখন থেকে ছেলে জেলে গিয়েছে, তখন থেকেই নাওয়া খাওয়া ভুলে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান ও গৌরী খান।

তবে এখন শাপ মুক্তি হয়েছে। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে বৃহস্পতিবার আরিয়ানের জামিন হয়। তবে জামিন হলেও তাঁকে সেদিন জেলেই কাটাতে হয়। শুক্রবারও আরিয়ানকে মুক্ত করে না জেল কর্তৃপক্ষ। অবশেষে শনিবার সকাল ১০টা নাগাদ সমস্ত নিয়ম পালন করে এবং সমস্ত কাগজপত্র ঠিক করে জেল থেকে ছাড়া পান বাদশা খানের ছেলে।

এদিন বাদশা পুত্রকে জেলে থেকে বের হওয়ার সময় এক ঝলক দেখার জন্য আর্থার রোড কারাগারের সামনে জমেছিল অজস্র মানুষের ভিড়। আর সেই ভিড়ে ঘটে যায় আজব কাণ্ড। শাহরুখ পুত্রকে মুক্ত হতে দেখতে গিয়ে কমপক্ষে ১০ জন তাঁর মোবাইল ফোন হারিয়ে ফেলেন। আসলে, হারিয়ে ফেলা বললে ঠিক হবে না। তাঁদের ফোন আর্থার রোড জেলের সামনে থেকে চুরি যায়। এই ঘটনা সামনে আসার পর নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

তবে কারাগারের সামনে অজস্র পুলিশ থাকার পরেও কীভাবে পকেটমারেরা ফোন চুরি করার সাহস জোটাতে পারল, সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। প্রিয় বলিউড অভিনেতার ছেলেকে জেল মুক্ত হতে দেখতে গিয়ে কেউ ভাবতেই পারেনি যে তাঁদের প্রিয় ফোনটাই চুরি হয়ে যাবে।

আরিয়ানকে জেল মুক্ত করার সময় আর্থার রোড সংশোধনাগারের সামনে বিশাল মানুষের জমায়েত যে হবে, সেটা আগেই আঁচ করতে পেরেছিল পুলিশ। আর সেই কারণে সকাল থেকেই সেখানে অতিরিক্ত ফোর্সও মোতায়েন করা ছিল। কিন্তু তাঁর মধ্যেও ঘটে যায় এই ঘটনা। শাহরুখ তাঁর ছেলেকে পেল, কিন্তু যারা মোবাইল খুইয়েছেন, তাঁরা কী তাঁদের মোবাইল ফিরে পাবেন? সেটাই স্খন সবথেকে বড় প্রশ্ন।

[ad_2]