Press "Enter" to skip to content

আলাপনকে নোটিশ কেন্দ্রের, ৩০ দিনের মধ্যে জবাব না দিলে পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি


কলাইকুণ্ডায় প্রধানমন্ত্রীর মিটিংয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Alapan Banerjee) অনুপস্থিতি নিয়ে শুরু হয়েছিল বিতর্ক। এরপর তাঁকে দিল্লীতে বদলি করেছিল কেন্দ্র। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওনাকে যেতে দেননি।

আর ঠিক মেয়াদ ফুরনোর দিনে নিজের পদ থেকে দিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করেছিলেন আলাপনবাবু। এরপর মুখ্যমন্ত্রী ওনাকে নিজের মুখ্য উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ করেন। ছাড়লেও ওনাকে যে কেন্দ্র অত সহজেই ছাড়ছে না, সেট আবারও প্রমাণিত হল।

উল্লেখ্য, রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ তুলে কেন্দ্রের কর্মীবর্গ দফতর চিঠি পাঠিয়েছে। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে তাঁকে ওই চিঠির জবাব দিতে বলা হয়েছে। কেন্দ্রের কর্মীবর্গ দফতর থেকে জানানো হয়েছে যে, অল ইন্ডিয়া সার্ভিস রুলের ৮ নম্বর ধারা অনুযায়ী তাঁকে আলাপনবাবুকে এই চিঠি দেওয়া হয়েছে। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে চিঠির জবাব না দেওয়া হলে, একতরফা পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দফতর।

মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ উঠতেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছে শাসক দল । তৃণমূলের বিধায়ক তাপস রায় বলেন, ‘এই চিঠিতেই বোঝা গিয়েছে যে বাংলার প্রতি সরকারের কতটা ক্ষোভ। প্রতিহিংসার রাজনীতি করে চলেছে ।” এই বিষয়ে ি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার জানান, এখানে রাজনীতির কিছুই নেই। যা হচ্ছে সব আইন অনুযায়ী।