Press "Enter" to skip to content

আলীগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটির ছাত্র হয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা, PhD ডিগ্রি ফেরত চাইল বিশ্ববিদ্যালয়

নয়া দিল্লিঃ  মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় (Aligarh Muslim University) আরও একবার বিতর্কে উঠে এল। এবার -র দানিশ রহিম নামের এক ছাত্র অভিযোগ করে বলেছেন যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) প্রশংসা করায় তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে। তিনি এও জানান যে, তাঁর কাছ থেকে PhD ডিগ্রি পর্যন্ত ফেরত চেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। যদিও দানিশের সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

রিপোর্ট অনুযায়ী, PhD স্কলার দানিশ রহিম হাইকোর্টেও এই নিয়ে পিটিশন দাখিল করেছেন। ওনার মতে AMU নোটিশ পাঠিয়ে Linguistic (ভাষা ) ডিগ্রি ফিরিয়ে LAM ডিগ্রি নেওয়ার কথা বলেছে। দানিশ অভিযোগ করে বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করায় আমার সঙ্গে এসব করা হচ্ছে।

দানিশ জানান, AMU-র স্থাপনার ১০০ বছর পূরণ হওয়ার অবসরে গত বছরের ২২ ডিসেম্বর একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন। এরপর মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করেন। আর এই কারণেই Linguistic বিভাগের চেয়ারম্যান প্রোফেসর মহম্ জাহাঙ্গীর তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করছেন।

দানিশের মতে, তিনি AMU থেকে ভাষা বিজ্ঞানে PhD করেছেন। ৯ মার্চ ২০২১-এ তাঁকে ডিগ্রি দেওয়া হয়েছিল। আর এখন প্রায় ৬ মাস পর তাঁকে ডিগ্রি ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। দানিশ অভিযোগ করে বলেন, এই বছরের ৮ই ফেব্রুয়ারি প্রোফেসর মহম্মদ জাহাঙ্গীর আমাকে ডেকে বলেন, আপনি একজন ছাত্র আর এই কারণে আপনি কোনও দলের হয়ে কথা বলতে পারবেন না। আপনার ভাষা আর সাক্ষাৎকার দেখে আপনাকে কোনও পার্টির সদস্য বলেই মনে হচ্ছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

দানিশের অভিযোগকে সম্পূর্ণ ভাবে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন AMU-র মুখপাত্র সাইফি কিদওয়াই। মুখপাত্র বলেন, দানিশ ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের LAM (বিজ্ঞাপন এবং বিপণনের ভাষা) কোর্সে MA এবং PhD করেছেন, যা ভাষাবিজ্ঞানে PhD ডিগ্রিও অফার করে। যেহেতু তিনি LAM-এ MA করেছেন, তাই তাঁর LAM-এ PhD ডিগ্রি নেওয়া উচিৎ।

https://platform.twitter.com/widgets.js