Press "Enter" to skip to content

ইউক্রেনের উদ্ধারকারী বিমান হাইজ্যাক করা হয়েছে কাবুলে


নয়া দিল্লিঃ আফগানিস্তানে আটকে পড়া নাগরিকদের উদ্ধার করার জন্য কাবুলে যাওয়া ইউক্রেনের একটি বিমান হাইজ্যাক করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। বিমান হাইজ্যাকের দাবি করেছেন ইউক্রেন্স সরকারেরই মন্ত্রী। যদিও, ওনার এই দাবির কয়েক ঘণ্টা পর ইউক্রেন সরকার এরকম ঘটনা হয়নি বলে জানিয়েছে। সরকার জানিয়েছে যে, নাগরিকদের উদ্ধার করতে যাওয়া আমাদের কোনও বিমানই হাইজ্যাক হয়নি।

https://platform.twitter.com/widgets.js

ইউক্রেনের উপ- মন্ত্রী দাবি করেছেন যে, রবিবার কাবুলে পৌঁছান তাঁদের বিমান দু’দিন পর অপহরণকারীরা ইরানের দিকে নিয়ে গিয়েছে। ওই বিমানে ইউক্রেনের নাগরিক ছাড়াও অন্য যাত্রীরা সওয়ার ছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি জানান, আফগানিস্তানে আটকে থাকা আমাদের নাগরিকদের উদ্ধারের তিনটি প্রয়াস ব্যর্থ হয়েছে। কারণ আমাদের নাগরিকদের ে আসতে দেওয়া হচ্ছে না।

ইউক্রেনের বিদেশ মন্ত্রালয়ের সভাপতি ওলেগ নিকোলেনকো মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার সময় বলেছেন, ইউক্রেনের কোনও বিমান কাবুল অথবা অন্য কোথাও হাইজ্যাক হয়নি। কিছু মিডিয়ায় বিমান হাইজ্যাকের খবর ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু এসব সত্য না।

https://platform.twitter.com/widgets.js

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত ৮৩ জন কাবুল থেকে কিউভে পৌঁছেছেন। এদের মধ্যে ৩১ জন ইউক্রেনের নাগরিক রয়েছেন। আফগানিস্তানে এখনও প্রায় ১০০-র বেশি ইউক্রেনের নাগরিক আটকে রয়েছে। তাঁদের উদ্ধার করার কাজ চলছে।