Press "Enter" to skip to content

ইতিহাসে প্রথমবারেই ঐতিহাসিক ভুল, আলিমুদ্দিনে উল্টো জাতীয় পতাকা উত্তোলন বিমান বসুর


কলকাতাঃ দেশ স্বাধীনের ে প্রথমবার দফতরে জাতীয় পতাকা তোলার ঘোষণা করেছিল । আর তাতে বিপত্তি। ৭৫ তম ের চেয়ারম্যান বিমান বসু উল্টো জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে শোরগোল ফেলে দিয়েছেন।

মুজাফফর আহমেদ ভবনে বিমানবাবু উল্টো জাতীয় পতাকা যখন তুলছিলেন, তখন বিষয়টি নজরে আসে মহম্ সেলিমের। আর তখনই তিনি বিমানবাবুকে থামিয়ে দেন। এরপরই বিমান বসু নিজের ভুল শুধরে নিয়ে সোজা পতাকা উত্তোলন করেন।

যদিও, এই উল্টো জাতীয় পতাকা তোলা নিয়ে মুখ খুলতে রাজি নন বিমান বসু, মহম্মদ সেলিম ও সুজন চক্রবর্তীরা। তবে বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান জানিয়েছেন যে, এবার থেকে রাজ্যের প্রতিটি সিপিএম পার্টি অফিসেই জাতীয় পতাকা উত্তোলন হবে।

বিজেপি সহ দেশের প্রতিটি রাজনৈতিক দলই স্বাধীনতা দিবস, প্রজাতন্ত্র দিবস পালন করে থাকে। তবে বাংলায় ৩৪ বছর আর ত্রিপুরায় ২৫ বছর এবং কেরলে শাসনে থেকেও েরা স্বাধীনতা দিবস পালন করত না। কিন্তু এবার নিজেদের জাতীয়তাবাদী প্রমাণ করতেই তাঁরা এই পথে হেঁটেছেন। শুধু বাংলাতেই না, গোটা ভারতের প্রতিটি সিপিএম পার্টি অফিসেই এখন থেকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে।

কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকেই দেশজুড়ে স্বাধীনতা দিবস পালনের ঘোষণা করেছিল সিপিএম। শুধু স্বাধীনতা দিবসই না, মানুষের কাছে পৌঁছে স্বাধীনতা আন্দোলনে বামেদের কী ভূমিকা ছিল, সেটাও জানাতে তৎপর হয়েছে তাঁরা। আর সেই সুবাদেই দীর্ঘ ৭৪ বছর পার করে দলীয় পার্টি অফিসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা শুরু করল বামেরা।