Press "Enter" to skip to content

ইতিহাস গড়ল ভারত! টুইট করে সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

আসা মহামারি প্রত্যেকের জীবন বিপর্যস্ত করে দিয়েছিল। তবে এখন অনুমান করা যাচ্ছে যে,মোদী সরকারের প্রয়াসের দরুন সাধারণ মানুষ তাদের সাধারণ জীবনযাত্রা ফিরে পাবে। মোদী সরকার েশনের এমন প্ল্যান বানিয়েছে যার প্রসংশা আন্তর্জাতিক মহলেও হতে শুরু হয়েছে। খবরও এও আসছে, ভ্যাকসিনেশনে ভারত নতুন রেকর্ড তৈরি করেছে।

নরেন্দ্র মোদী নিজে টুইট করে এই খবর দেশবাসীকে জানিয়েছেন। একই সাথে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও টুইট দেশবাসীকে উৎসাহিত করা তথ্য শেয়ার করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশে ভ্যাক্সিনেশনে সমস্ত রেকর্ড ভাঙার খুশি জাহির করে বলেছেন, ‘আজ রেকর্ড টিকাকরণ! ১ কোটি পার করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ উপলব্ধি। টিকা নেওয়া আর এই অভিযানকে সফল বানানো মানুষদের শুভেচ্ছা জানা।”

অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ লিখেছেন, “১ দিনে ১ কোটি ভ্যাকসিন! এই পরিসংখ্যান নতুন ভারতের দৃঢ় ইচ্ছাশক্তি ও ক্ষমতার প্রতিবিম্ব। এক দূরদর্শী নেতৃত্বে কিভাবে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে উদাহরণ প্রস্তুত করা যায়, তা ভারত দেখাচ্ছে।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে একদিনে এক কোটি ভ্যাকসিন দেওয়ার উপলব্ধির ঘোষণা করে বলেন, ‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ, সবকা বিশ্বাস, সবকা প্রয়াস/ এটা সেই প্রয়াস যার দরুন দেশ একদিনে ১ কোটির বেশি মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিসংখ্যান পার করে ফেলেছে। স্বাস্থ্যকর্মীদের অধিক পরিশ্রম আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার সংকল্প সফল হচ্ছে।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

প্রসঙ্গত, দেরি করে হলেও করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে ভারত। আর এই গতিই করোনা নামক মহামারিকে নিশ্চিহ্ন করা এবং দেশের মানুষকে সুরক্ষিত করার জন্য খুব দরকার। শুক্রবার গোটা দেশে ১ কোটি মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। যা এক ঐতিহাসিক রেকর্ড হিসেবে গণ্য হবে।