Press "Enter" to skip to content

ইসলামে গানবাজনা হারাম! এবার তালিবানের হাতে খুন প্রসিদ্ধ লোকশিল্পী


নয়া দিল্লিঃ  ের রাজধানী কাবুল দখল করার পর তালিা জানিয়েছিল যে ২০ বছর পূর্বের তালিবান আর এখনকার তালিবানের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। এখন তাঁরা আর কট্টরপন্থী নয়, এখন তাঁরা শান্তিকামী এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করবে। কিন্তু এসব যে তাঁদের শুধুমাত্র ডায়লগই ছিল, সেটা যত দিন যাচ্ছে তত বোঝা যাচ্ছে।

আফগানিদের বাড়িতে ঢুকে অত্যাচার, খুন। মহিলাদের মেরে ফেলার পরেও ধর্ষণ। শরিয়া আইন লাগু করে মহিলাদের স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়া এবং যেসমস্ত আফগান নারগরিকরা আমেরিকার সাহায্য করেছিল বা আমেরিকার প্রশংসক তাঁদের খুঁজে বের করে হত্যা করার এক একটি ঘটনা প্রমাণ করে দিয়েছে যে, ৯০-র দশকের তালিবান আর এখনকার তালিবানের মধ্যে শুধু ফারাক বছরের, আর কিছু না।

আর এবার তালিবানিদের আরও একটি নৃশংসতার কাহিনী সামনে এসেছে। এবার আফগানিস্তানের জনপ্রিয় লোকশিল্পী ফাওয়াদ আন্দ্রাবিকে (Fawad Andarabi) হত্যা করার অভিযোগ উঠল বর্তমানের আফগান শাসক তালিবানদের বিরুদ্ধে। দেশের প্রাক্তন মন্ত্রী মাসুদ আন্দ্রাবি একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

উল্লেখ্য, তালিবান দেশে শরিয়া আইন লাগু করতে চায়। আর শরিয়া আইন অনুযায়ী অনেক কিছুই হারাম ইসলামে। সেই মতে গান-বাজনা করাও হারাম। এখন প্রশ্ন উঠছে যে, তাহলে কী সেই শরিয়া আইন পালন করানোর জন্যই লোকশিল্পীকে খুন করল তালিবানরা? উল্লেখ্য, এর আগে আফগানিস্তানের জনপ্রিয় কৌতুক শিল্পী নজর মহম্মদকেও খুন করেছিল তালিবানরা। আর এবার লোকশিল্পী ফাওয়াদকে হত্যা করার খবর সামনে আসতেই চারিদিকে নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।