Press "Enter" to skip to content

ইয়াস বিধ্বস্ত ওড়িশার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোনও ক্ষতিপূরণ চাইলেন না নবীন পট্টনায়ক

ভুবনেশ্বরঃ বুধবার শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস (Yaas Cyclone) ওড়িশার (Odisha) উপকূলে আছড়ে পড়েছিল। ইয়াস ওড়িশার বালাসোর হয়ে ঝাড়খণ্ডের দিকে এগিয়ে যায়। এই ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে এবারও ওড়িশার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। প্রতিবছরই ওড়িশার উপকূলে আছড়ে পড়ে একের পর এক ঝড়। আর প্রতিবারই ঝড়ের আগে এবং পড়ে ওড়িশা উপকূলবর্তী এলাকার মানুষ সরিয়ে নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে উদ্ধার এবং তাঁদের পুনর্বাসনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়।

দুর্যোগ মোকাবিলায় ওড়িশা সরকারের পদক্ষেপ শুধু েই নয়, গোটা বিশ্বেই প্রশংসিত। এমনকি বিপর্যয় আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও অর্জন করেছে ওড়িশার নবীন পট্টনায়ক (Naveen Patnaik) সরকার। এবার ইয়াসের ফলে হওয়া ক্ষতির পর্যবেক্ষণ করতে আজই ওড়িশায় যান প্রধানমন্ত্রী (Narendra Modi)। ওড়িশার নবীন পট্টনায়ক ওনাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান। এরপর সরকারি আমলা এবং রাজ্যের মন্ত্রীদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন নবীনবাবু। সেখানে তিনি ঝড়ে কতটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে আর ক্ষতিপূরণ এবং পুনর্বাসনের জন্য সরকার কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে তা জানান।

https://platform.twitter.com/widgets.js

কিন্তু অবাক করা বিষয় হল, প্রধানমন্ত্রীকে সবকিছু বুঝিয়ে দেওয়ার পরেও রাজ্যের ক্ষতিপূরণের জন্য এক টাকাও চাননি ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক। ক্ষতিপূরণ চাওয়ার পরিবর্তে নবীনবাবু ওড়িশায় এসে বিধ্বস্ত এলাকাগুলো ঘুরে দেখার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। নবীনবাবু বলেছেন, গোটা দেশে বেড়ে চলা করোনা মহামারীর কারণে কেন্দ্র সরকারের মাথায় এমনিতেই অনেক বোঝা রয়েছে, তাই ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতিপূরণ এবং পুনর্বাসনের তিনি এখন আর কোনও বোঝা চাপাতে চাননা কেন্দ্রে উপর।

তিনি এও বলছেন যে, ওড়িশার কাছে বর্তমানে যা আছে তাই দিয়েই কাজ চালানো হবে। নতুন করে কেন্দ্রের মাথায় এখন আর কোনও বোঝা চাপান হবে না।