Press "Enter" to skip to content

উত্তর প্রদেশে নিরীহ সন্ন্যাসীকে রাতের অন্ধকারে পিটিয়ে খুন, চরম চাঞ্চল্য এলাকায়

মেরঠঃ ের মেরঠ জেলায় এক সন্ন্যাসীকে পিটিয়ে হত্যা করার পর এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সাধুর দেহ উদ্ধার হওয়ার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়, এরপর স্থানীয়রা ক্ষোভে ফেটে পড়ে একত্রিত হয়ে খুনিদের গ্রেফতার করার দাবি জানায়। স্থানীয়দের বিক্ষোভের পর আধিকারিক, ফরেনসিক টিম আর ডগ স্কোয়াড এলাকায় পৌঁছয়। যদিও, এখনও খুনের কিনারা করতে পারেনি পুলিশ।

এই ঘটনা মেরঠ থানার মুন্ডালি এলাকার কৈথবাডা গ্ে ঘটেছে। সেখানে এক ব্রহ্মচারী সন্ন্যাসী চন্দ্রপালের আজ সকালে দেহ উদ্ধার হওয়া চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সকালে জমিতে চাষ করতে যাওয়া মানুষেরা মৃতদেহ দেখে। এরপর গোটা গ্রামে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় আর সবা একত্রিত হয়ে খুনিদের কঠোর শাস্তির দাবি করতে থাকে। ঘটনার পেতেই পুলিশের আধিকারিকরা সেখানে পৌঁছয় এবং তদন্ত শুরু করে দেয়। স্থানীয়রা দাবি করেন যে, কিছু মানুষ ওই সন্ন্যাসীকে পিটিয়ে মেরেছে।

স্থানীয়রা জানা, সন্ন্যাসীকে পিটিয়ে হত্যা করার পর তাঁর দেহ রাস্তার ধারে ফেলে পালায় দুষ্কৃতীরা। গ্রামবাসীরা জানান, বডলা গ্রামের সিদ্ধপীঠ চামুণ্ডা ীর মন্দিরের পাশে থাকতেন চন্দ্রপাল। বিগত ১২ বছর ধরে তিনি সাধনায় বিলীন ছিলেন। কয়েকজন স্থানীয় মানুষ ওনার সঙ্গে অশান্তি করেছিল বলে জানা গিয়েছে। যদিও, পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত করছে।

পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠিয়ে দেয়। তদন্তকারীরা খুনের তদন্তে নেমেছে এবং স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে। পুলিশের তরফ থেকে আশ্বস্ত করা হয়েছে যে, দোষীকে খুব শীঘ্রই ধরে ফেলে কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।