Press "Enter" to skip to content

উপত্যকায় জঙ্গি নিধন যজ্ঞে নামল সেনা, এনকাউন্টারে নিকেশ ৯ জেহাদি

[ad_1]

শ্রীনগরঃ জম্মু কাশ্মীরে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ৯ সন্ত্রাসবাদীকে নির্মূল করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম, অনন্তনাগ এবং শ্রীনগরে বুধবার এবং বৃহস্পতিবার তিনটি পৃথক সংঘর্ষে এবং জেওয়ানে একটি পুলিশ বাসে হামলাকারী তিন জইশ সন্ত্রাসী সহ নয়জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। নিহত সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে দুটি M4, চারটি AK 47 রাইফেল ও অন্যান্য অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

শ্রীনগর জেলার উপকণ্ঠে পান্থা চকে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের পর শুরু হওয়া এনকাউন্টারে তিন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। এখনও নিহত হওয়া সন্ত্রাসীদের সনাক্ত করা যায়নি। সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হয়েছেন চার জওয়ান। এর মধ্যে রয়েছেন তিনজন পুলিশ এবং একজন সিআরপিএফ জওয়ান। পুলিশ জানিয়েছে, গোমন্দর মহল্লায় কিছু সন্দেহভাজন ব্যক্তির উপস্থিতির খবর পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর একটি দল ঘটনাস্থলে যায়।

সেই সময় দলটি সন্দেহভাজন ব্যক্তির বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করার সময় হঠাৎ ভিতর থেকে প্রচণ্ড গুলির শব্দ হয়। সন্ত্রাসীদের চালানো গুলিতে আহত হয়েছেন চার জওয়ান। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে নিরাপত্তা বাহিনী তিন সন্ত্রাসীকে নিকেশও করেছে। গভীর রাত পর্যন্ত ওই এলাকায় তল্লাশি অভিযান চলে।

দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগের নওগামে আরও দুই জঙ্গিকে নিকেশ করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। এনকাউন্টারে এক সেনা জওয়ানও শহিদ হয়েছেন। নিহত সন্ত্রাসীরা ১৩ ডিসেম্বর জেওয়ানে পুলিশের বাসে হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল। এর আগে বুধবার রাতে নওগাম এবং কুলগামে জইশের এক পাকিস্তানি নেতা সহ তিন সন্ত্রাসী নিহত হয়। এমতাবস্থায়, নিরাপত্তা বাহিনী এক রাতে দুই এনকাউন্টারে ছয় সন্ত্রাসীকে খতম করে।

সেনাবাহিনীর ১৫ তম কোরের জিওসি লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডিপি পান্ডে বৃহস্পতিবার বলেছেন যে, নিরাপত্তা বাহিনী সন্ত্রাসীদের সম্পর্কে অনেক তথ্য পেয়েছিল। এর পরে বুধবার সন্ধ্যায় অনন্তনাগের নওগাম শাহাবাদ এবং কুলগামের মিরহামা এলাকায় তল্লাশি অভিযানের সময় এনকাউন্টার হয়। এই এনকাউন্টারে জইশের দুই পাকিস্তানি সন্ত্রাসী সহ মোট ছয় জঙ্গি নিহত হয়েছে। গত পাঁচ দিনে, নিরাপত্তা বাহিনী উপত্যকায় ১১ জন কুখ্যাত সন্ত্রাসীকে নিকেশ করেছে।

[ad_2]