Press "Enter" to skip to content

একটি ভিডিওকে হাতিয়ার করে মুকুল রায়কে নাস্তানাবুদ করতে চায় শুভেন্দু, কষা হল ছক


কলকাতাঃ ২০২১-এ প্রথমবার ে জয়লাভ করেন । এরপর তিনি মাস খানেক পর তৃণমূলে যোগদান করেন। মুকুলবাবু তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর থেকে ওনার বিধায়ক পদ খারিজ করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন বিরোধী দলনেতা । এমনকি তিনি আদালতে যাওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। তবে বিজেপি এবং শুভেন্দু অধিকারীর হাজার বিরোধীটা সত্বেও মুকুল রায়কে পিএসি চেয়ারম্যান করেছেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

স্পিকারের এই সিদ্ধান্তের পর বিজেপি আরও ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। এরপর তাঁরা মুকুলবাবুর বিধানসভার সদস্য পদ খারিজ করার জন্য বেশী করে উঠেপড়ে লেগেছে। শুভেন্দু অধিকারী ইতিমধ্যে রাজ্যপালের কাছে দিয়ে এই বিষয়ে অভিযোগ করেছেন। এমনকি তিনি রাষ্ট্রপতির কাছেও যাবেন বলে জানা গিয়েছে এছাড়াও এই ইস্যু এবার সরাসরি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ের কাছেও গিয়েছে।

আরেকদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ এবং বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে মুকুল রায় এখনও বিজেপিরই সদস্য রয়েছেন। সেই কারণেই বিরোধী হিসেবে ওনাকে পিএসির চেয়ারম্যান করা হয়েছে। কিছুদিন আগে আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূলে যোগ দেওয়া মুকুল রায়কে বিজেপির বিধায়ক বলায় গেরুয়া শিবির আরও চটে গিয়েছে। আর এবার তাঁরা ভিডিও সহ প্রমাণ পেশ করে দেখাতে চলেছে যে, মুকুল রায় বিজেপির না তৃণমূলের।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে একটি ভিডিও সিডি তৈরি করা হয়েছে। যেখানে মুকুল রায়কে তৃণমূলে যোগ দিতে দেখা যাচ্ছে। বিজেপি এবার সেই তথ্যপ্রমাণই তুলে ধরতে চাইছে। পাশাপাশি বিজেপি থেকে আরও কাকে কাকে তৃণমূলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, সেটিরও তথ্য দিতে চলেছে গেরুয়া শিবির।

এছাড়াও মুকুল রায় আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর যেই খবর তৈরি হয়েছে, সেগুলোকেও প্রমাণ হিসেবে তুলে ধরতে চাইছে বিজেপি। এই ভিডিও তৈরি করার জন্য একজন বর্ষীয়ান আইনজীবীর পরামর্শ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ভিডিওতে সমস্ত তথ্য প্রমাণ দিয়ে বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে পেশ করা হবে। এবং দলত্যাগ বিরোধী আইন অনুযায়ী মুকুলবাবুর সদস্য পদ বাতিলের আবেদন জানাবে গেরুয়া শিবির।