Press "Enter" to skip to content

এতটাই শোকাচ্ছন্ন যে, প্রয়াত মন্ত্রীর স্মরণসভায় না গিয়ে পার্টি করলেন! মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ শুভেন্দুর


কলকাতাঃ কালীপুজোর দিন SSKM হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় প্রয়াত হন রাজ্যের প্রাক্তন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee)। ওনার এভাবে চলে যাওয়ায় রাজ্য রাজনীতিতে শোকের ছায়া নেমে আসে। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বাড়ির পুজো ফেলে রেখে ওনাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। তবে তিনি সুব্রতবাবুর স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন না। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে তিনি এতটাই শোকাহত ছিলেন যে, তিনি সেখানে যাওয়ার সাহস াতে পারেন নি।

এবার সেই নিয়েই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। শুভেন্দুবাবু একটি ট্যুইটের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন। তিনি লিখেছেন, সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে তিনি এতটাই শোকাহত ছিলেন যে, তিনি স্মরণসভায় যাওয়ার সাহস যোগাতে পারেন নি। অন্যদিকে সেই দিনেই তিনি ইকো পার্কের একটি বিলাসবহুল পার্টিতে যোগ দেন। ওই পার্টিতে ১০০০-র বেশি মানুষ ছিল আর ৩০টির বেশি সুস্বাদু মেনু সহকারে তিনি পিকনিক করেন। যদিও, শুভেন্দুবাবু এখানে মুখ্যমন্ত্রীর নাম নেন নি। তবে, এই ট্যুইট যে তাঁকেই ইঙ্গিত করেই ছিল, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

https://platform.twitter.com/widgets.js

উল্লেখ্য, দীপাবলির আলোর উৎসবের দিনেই সুব্রত মুখোপাধ্যায় প্রয়াত হন। সেদিন এসএসকেএমে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, আলোর উৎসবের দিনে এতবড় অন্ধকার নেমে আসবে, ভাবতে পারিনি। এমনকি তিনি এতটাই শোকাহত ছিলেন যে, প্রয়াত মন্ত্রীকে শেষবারের মতো দেখতেও যান নি। এমনকি ওনার শেষকৃত্যেও মুখ্যমন্ত্রীকে দেখা যায়নি।

সুব্রত মুখপাধ্যায়কে শাসক, বিরোধী সমস্ত দলের নেতা-নেত্রীরাই শ্রদ্ধাঞ্জলি দিয়েছেন। ওনার শেষকৃত্যে অগণিত মানুষের ভিড়ও দেখা যায়। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও সেদিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। তবে মুখ্যমন্ত্রী যান নি। আর এবার শোকে কাতর থাকার নামে ইকো পার্কে পিকনিক করা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কটাক্ষ করলেন শুভেন্দু অধিকারী।