Press "Enter" to skip to content

এবার দেবী দুর্গা রূপে পূজিত হবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা, মূর্তি বানাচ্ছে কলকাতার ক্লাব


ঃ আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা, তারপরই শুরু হচ্ছে বাঙালীদের শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। গোটা জুড়ে দুর্গা পুজো খুবই ধুমধাম করে পালিত হয়। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় যেখানে বাঙালীদের সংখ্যা বেশি, সেখানেও সারম্বরে পালিত হয় এই উৎসব।

তাছাড়া দেশের বাইরে বিশ্বের বহু দেশেই পালিত হয় বাঙালীদের শ্রেষ্ঠ উৎসব। কলকাতার কুমোরটুলি থেকে সাত সমুদ্র তেরো নদী পার করে বিভিন্ন দেশে পাড়ি দেন মা দুর্গা। তবে গত বছর করোনার কারণে বাংলা তথা দেশের কোথাও তেমন ভাবে পালিত হয়নি দুর্গা পুজো।

এবছরও করোনার ভ্রূকুটি রয়েছে। দ্বিতীয় ঢেউ শেষ হওয়ার আগেই তৃতীয় ঢেউয়ের প্রমাদ গুনছে দেশবাসী। আর সেই কারণে এবারও দুর্গা পুজোটাই হবে, কিন্তু উৎসব কোথাও হবে না। কারণ এখনও দেশের প্রায় সব রাজ্যেই করোনার জন্য লকডাউন জারি রয়েছে।

বাংলায় প্রতিবছরই দুর্গা পুজোয় নতুন নতুন থিমের মাধ্যমে দেশবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। গতবার পরিযায়ী শ্রমিকদের ব্যথার কথা তুলে ধরে বেহালার বড়িশা ক্লাব এক অনবদ্য ভাবনা এনেছিল। যার জেরে তাঁরা অনেক সুখ্যাতিও অর্জন করেছিল। পাশাপাশি মুর্শিদাবাদের একটি পুজো কমিটি অসুরের জায়গায় চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-র মূর্তি করে নাম কামিয়েছিল।

আর এবারও এমনই কিছু পরিকল্পনা নিয়ে সামনে এসেছে কলকাতার বাগুইয়াটির নজরুল পার্ক উন্নয়ন সমিতি। এবার তাঁরা প্রতিমার মুখ রাজ্যের বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখের আদলে করে নজর কাড়ছে সবার। মায়ের দশ হাতে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প গুলিকে ফুটিয়ে তোলার ভাবনা নিয়েছে পুজো কমিটি। এমনকি মণ্ডপসজ্জাতেও মমতা সরকারের বিভিন্ন কাজের নিদর্শন ফুটিয়ে তোলার চ্যালেঞ্জ নিয়েছে তাঁরা।