Press "Enter" to skip to content

এবার ধর্মে আঘাত হানার দুঃসাহস করিনার, মুম্বাইয়ে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

মুম্বাইঃ একসময় বিনোদন জগত কাঁপালেও বর্তমানে শুধুমাত্র বিতর্কের মধ্য দিয়েই নিজেকে লাইমলাইটে রাখতে চান করিনা কাপুর খান। একের পর এক বিতর্কিত কাজকর্ম ও নেগেটিভ মন্তব্যের মধ্য দিয়েই নিজেকে তুলতে ধরতে চান তিনি। তিনি যেন ইচ্ছাকৃতভাবে বিতর্ক জিইয়ে রাখতে চান। তাই বিতর্ক‌ও পিছু ছাড়ছে না করিনা কাপুর খানের।

ছোট ছেলের নাম নিয়ে ইতিমধ্যে নেটিজেনদের একাংশের সমালোচনার কবলে পড়েছিলেন তিনি। সে ঘটনা থামার আগেই আবার এক বিপদ হাজির অভিনেত্রীর দোরগোড়ায়। সম্প্রতি তাঁর স্বহস্তে লেখা বইয়ের নামের জন‍্য আইনি জটিলতায় ফেঁসেছেন করিনা। এক সংগঠন পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে।

গত ৯ জুলাই করিনার লিখিত বই ‘প্রেগনেন্সি বাইবেল’ (pregnancy bible) প্রকাশিত হয়েছে। নিজের অন্তঃসত্ত্বাকালীন সফরের নানা মুহুর্ত এই বইতে তুলে ধরেছেন অভিনেত্রী। কিন্তু বই প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছেন বেবো।

বইটির নাম নিয়ে আপত্তি রয়েছে আলফা ওমেগা ক্রিশ্চিয়ান মহাসংঘের। মহারাষ্ট্রের বিডের শি নগর পুলিশ স্টেশনে করিনা সহ আরও দুজনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আশিস শিন্ডে। অভিযোগের কারণ হিসেবে জানিয়েছেন, করিনা ও অদিতি শাহ ভিমজানির (বইটির সহ লেখিকা) লেখা বইয়ের নামকরণে পবিত্র ‘বাইবেল’ শব্দটি ব‍্যবহার করা হয়েছে যা খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় ভাবাবেগে চরম আঘাত হেনেছে।

মোট তিনজনের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ২৯৫-এ ধারায় মামলা দায়ের করার আবেদন জানিয়েছেন শিন্ডে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনও এফআইআর এখনও দায়ের করা হয়নি। পুলিশের পক্ষ থেকে অভিযোগকারীদের বলা হয়েছে মুম্বইতে অভিযোগ দায়ের করার জন্য।

মাত্র কয়েকদিন আগে প্রকাশ‍্যে এসেছে স‌ইফ করিনার ছোট ছেলের নাম। ছোটো নবাবের নাম রাখা হয়েছে জেহ (jeh),যা একটি ল‍্যাটিন শব্দ। এর অর্থ হল নীল পাখির পালক। তবে নেটপাড়ার নাগরিকদের একাংশ সন্দেহ প্রকাশ করেছে, সম্রাট জাহাঙ্গিরের নাম অনুসারেই দ্বিতীয় সন্তানের নাম রেখেছেন করিনা কাপুর খান ও সইফ আলি খান।