Press "Enter" to skip to content

ঐতিহাসিক সিধান্ত: জনগণের করের টাকায় করা হবে না ইফতার পার্টি। এমনি সিদ্ধান্ত নিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

এমন একটা দেশ যেখানে ধর্মনিরপেক্ষতার নামে করা হয় বিশেষ সম্প্রদায়ের তোষণ। এমনকি সমস্থ সরকারি কাজেও এই ধর্মনিরপেক্ষতার নাম জুড়ে দেওয়া হয় ধর্ম পালনের কর্মসূচী। কিন্তু কেন্দ্রে আসার পড়ে থেকে এই তোষণ নীতি থেকে বেরোতে শুরু করেছে এবং সরকারি কাজের সাথে ধর্মকে আলাদা রাখার চেষ্টায় রয়েছে।

বুধবার(6 jun)দিন এমনি একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দেশের মহাশয়। রাষ্ট্রপতি জানিয়েছেন, রাষ্ট্রপতি ভবন একটা সরকারি দপ্তর যা জনগণের করের টাকায় চলে তাই এই ভবনে ইফতার পার্টির আয়োজন করা হবে না।

রাষ্ট্রপতি দেশের জনগণকে ধর্মীয় অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা জানাবেন ভবন থেকে কিন্তু কোনো ধর্মের জন্য খরচ করবেন না। ইফতার পার্টির জন্য যে বরাদ্দ অর্থ থাকে তা অনাথ আশ্রমে দেওয়া হবে বা অন্য কোনো জায়গায় কাজে লাগানো হবে যেমনটা প্রয়াত এপিজে করতেন। এপিজে আবদুল কালামেরও নীতি ছিল ধর্মের নামে রাষ্ট্রপতি ভবনে খরচ করা যাবে না, সেই মতো ইফতার পার্টির বরাদ্দ অর্থ অনাথ আশ্রমে দিয়ে দেওয়া হতো। তবে শুধু এক ধর্মের ক্ষেত্রে নয়, সমস্থ ধর্মের ক্ষেত্রেই এই নিয়মের পালন করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.