Press "Enter" to skip to content

ওঁরা বলেছিল পতাকা তুলতে দেব না, গোটা লাল চককেই তিরঙ্গায় রাঙিয়ে দিলেন মোদী

[ad_1]

শ্রীনগরঃ ৩৭০ ধারা (Article 370) তুলে নেওয়ার পর জম্মু কাশ্মীরে (jammu and kashmir) অনেক বদল দেখা গিয়েছে। আর সেই বদলের মধ্যে একটি হল স্বাধীনতা দিবসের জন্য জম্মু কাশ্মীরে বিশেষ প্রস্তুতি। ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের আগে শ্রীনগরের বিখ্যাত লাল চককে তিরঙ্গার রঙে রাঙানো হয়েছে।

বলে দিই, এই লাল চকে একসময় তিরঙ্গা তোলা প্রায় নিষিদ্ধই ছিল। কিন্তু ৩৭০ ধারা রদের পদ থেকে সেখানে অনেক বদল এসেছে। তিরঙ্গার রঙে রাঙা লাল চকের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ভাইরাল হচ্ছে। সবাই এর খুব প্রশংসাও করছে। শ্রীনগরের মেয়র, বিজেপি নেতা তেজিন্দর বজ্ঞা সমেত অনেকেই নয়া লাল চকের ছবি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

শ্রীনগরের মেয়র লাল চকের ছবি শেয়ার করে লিখেছেন আমরা স্বাধীনতা দিবসের আগে লাল চকের ঘণ্টাঘরকে তিরঙ্গার রঙে রাঙিয়ে দিয়েছি। নতুন ঘড়ি লাগিয়েছি। শ্রীনগর পুরসভা খুব ভালো উদ্যোগ নিয়েছে। তেজিন্দর বজ্ঞা নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে লাল চকের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ওঁরা বলত লাল চকে তিরঙ্গা তুলতে দেব না। নরেন্দ্র মোদী লাল চককেই তিরঙ্গা করে দিলেন।”

উল্লেখ্য, শ্রীনগরের লাল চক খুবই বিখ্যাত। ১৯৯২ সালে এই লাল চকেই বিজেপির প্রবীণ নেতা মুরলী মনোহর জোশি আর নরেন্দ্র মোদীর তিরঙ্গা উত্তোলন করেছিলেন। মুরলী মনোহর জোশি সেই সময় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি ছিলেন। আর নরেন্দ্র মোদী একতা যাত্রার সংযোজক ছিলেন।

[ad_2]