Press "Enter" to skip to content

ওলি আর চীনের মধুর সম্পর্কে ফাটল ধরাতে নতুন নিয়ম জারি করল নেপালের কমিউনিস্ট পার্টি


নয়া দিল্লীঃ ের () প্রধানমন্ত্রী () আর চীনের গভীর সম্পর্ককে ভাঙতে ওই দেশে কিছু নিয়মে বদল আনা হয়েছে। সুত্র থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, নেপালের কমিউনিস্ট পার্টি এটা বুঝতে পেরে গেছে যে নেপালে থাকা চীনের রাজদূত নেপালের রাজনীতিতে একটু বেশি করেই নাক গলাচ্ছেন। আর দেশের নীতি গুলোকেও নিজের হিসেবে বদল করার চেষ্টা করছেন। আর এটা দেখেই দলের মধ্যে আলোচনা করে নতুন নিয়ম জারি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শোনা যাচ্ছে যে, ভারতের বিরুদ্ধে নেপালকে উস্কে দেওয়া চীনের রাজদূত ঝাও ইয়াঙ্কি আর অন্যান্য রাজদূতের জন্য নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি আর রাষ্ট্রপতির সাথে সরাসরি সাক্ষাৎ এখন মুশকিল হয়ে গেছে। নেপালের বিদেশ মন্ত্রালয় বিদেশী রাজদূতদের জন্য এই নিয়ম বদলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, এখন কোন বিদেশ কূটনীতিবীদ নেপালের নেতাদের সাথে নির্ধারিত প্রটোকলের বাইরে সাক্ষাৎ করতে পারবেন না।

নেপালে চলা রাজনৈতিক উথালপাথালের মধ্যে চীনের রাজদূত নেপালের কমিউনিস্ট পার্টির অনেক নেতা ছাড়াও নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা ভাণ্ডারীর সাথে সরাসরি সাক্ষাৎ করেন। ওলির ক্ষমতা বহাল রাখার জন্য দিনরাত এক করা চীনের রাজদূতের বিরুদ্ধে নেপালের রাস্তার প্রতিবাদও হয়েছে। এমনকি ওনাকে শুধু দূতাবাসের মধ্যে থাকার পরামর্শও দেওয়া হয়েছিল। নেপালের মানুষের আক্রোশ বেড়ে যাওয়ার পর এবং চীন দ্বারা ধীরে ধীরে নেপালকে গ্রাস করে নেওয়ার পর এই নতুন নিয়ম জারি করা হয়েছে।

শোনা যাচ্ছে যে, নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি সমের দলের অনেক নেতাই চীনের রাজদূতের সাথে সরাসরি সাক্ষাৎ করতেন। আর ওনারা অন্য দেশের বিরুদ্ধে রণনীতি তৈরি করতেন। এরফলে ভারতের সাথে নেপালের সম্পর্ক দিনদিন খারাপ হয়েই চলেছে। চীনের রাজদূত ঝাও ইয়াঙ্কির ইশারায় নেপালের প্রধানমন্ত্রী ভারত বিরোধী কার্যকলাপ করতেন এমনকি নেপালের মানচিত্রও বদল করেছেন। আর এসব মাথায় রেখেই চীনের কমিউনিস্ট পার্টি এবার এই কড়া নিয়ম জারি করার নির্দেশ দিয়েছে।

The post ওলি আর চীনের মধুর সম্পর্কে ফাটল ধরাতে নতুন নিয়ম জারি করল নেপালের কমিউনিস্ট পার্টি first appeared on India Rag.