Press "Enter" to skip to content

‘ও পারে না” বলে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে মাইকে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে দিলেন না মুখ্যমন্ত্রী! ভাইরাল ভিডিও


কলকাতাঃ শনিবার ছিল কংগ্রেস ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস। এই দিন উপলক্ষে তৃণমূল কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন ও যুব এবং মাদার সংগঠনের নেতা-নেত্রীদের মধ্যে ছিল চরম উদ্দীপনা। সাজসাজ রব ছিল গোটা বাংলা জুড়ে। কিন্তু করোনার কারণে গত বছরের মতো এবছরেও ভার্চুয়ালি এই অনুষ্ঠান সারতে হয় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

তৃণমূল কংগ্রেসের ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে ভার্চুয়ালি ভাষণ দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের ভাষণের মধ্যে দিয়ে বারবার কেন্দ্র এবং বিজেপিকে আক্রমণ করতে দেখা যায় তাঁদের।

অভিষেকবাবু সরাসরি কেন্দ্রীয় অমিত শাহকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেন যে, তিনি এবার থেকে যেই রাজ্যেই পা রাখবেন, তৃণমূল সেই রাজ্যেই সরকার গড়বে। পাশাপাশি তিনি বিজেপিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন যে, বিজেপি শাসিত রাজ্যের মানুষদের অবস্থা করুণ তাই এবার থেকে সেই সব রাজ্যগুলি কেড়ে নেওয়াই তাঁদের মূল লক্ষ্য হবে।

অন্যদিকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বারবার কেন্দ্র এবং বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করেন। পাশাপাশি তিনি যুব সমাজকে আরও এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রেরণা দেন। অনুষ্ঠানের শেষে জাতীয় সঙ্গীত গাইবার সময় এক আজব কাণ্ড ঘটে।

অনুষ্ঠান শেষ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবাইকে দাঁড়ানোর জন্য আবেদন করেন। তিনি বলেন, এবার জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া হবে। সেই সময় মঞ্চে বর্তমান শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু এবং প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও উপস্থিত ছিলেন। ব্রাত্যবাবুকে জাতীয় সঙ্গীত গাইবার দায়িত্ব দেন মুখ্যমন্ত্রী।

এরপর ব্রাত্য বসু কিছু বললে, মুখ্যমন্ত্রী প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, ‘ও পারে না, তুমি করো না।” এরপর ব্রাত্য বসু জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া শুরু করেন। যদিও মাঝে একটু ছন্দপতন হয়েছিল। তখনই মুখ্যমন্ত্রী ওনার দিয়ে তাকিয়ে ওঠেন। তবে তাঁর আগেই তিনি সামলে যান।