Press "Enter" to skip to content

মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচার করতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়লো কংগ্রেস।

কর্নাটকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ের সভাপতি রাহুল গান্ধী এবং সিদ্বারামায়া কোমর বেঁধে প্রচারে নেমে পড়েছে। অন্যদিকে বিজেপি দেশের সব থেকে বড়ো এবং জনপ্রিয় নেতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে প্রচারে নেমে পড়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি নরেন্দ্র মোদী এবং যোগী আদিত্যনাথ এর কর্ণাটক প্রচারে আসা নিয়ে মোটেও খুশি হননি , কারণ মোদী ও যোগী এমন দুজন বড়ো নেতা যারা যেকোনো মুহূর্তে মানুষের আকর্ষণ নিজেদের দিকে টেনে নিতে পারেন। রাহুল গান্ধী এবং সিদ্বারামায়া তাই প্রচারে নেমে নিজেদের কাজের গুনগানের থেকে মোদী বিরোধিতায় বেশি মেতে উঠেছেন।
তবে সম্প্রতি রাহুল গান্ধী ও সিদ্বারামায়া মোদীর বিরোধিতা করতে গিয়ে এমন কিছু মন্তব্য করে ফেলেন যাতে তারা নিজেরাই বিপদে পড়ে যান।

আসলে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী(সিদ্বারামায়া) কিছুদিন আগেই প্রচারে গিয়ে বলেন, “চিন যেখানে প্রতিদিন ৫০,০০০ চাকরি তৈরী করছে সেখানে আমাদের প্রধানমন্ত্রী দেশে ৪৫০ থেকে ৫০০ চাকরি তৈরী করছেন।”
আপনাদের জানিয়ে রাখি এই পরিসংখ্যান সিদ্বারাময়ার মনগড়া একটা পরিসংখ্যান। যাই হোক
কর্নাটকের কংগ্রেস সরকার চাকরি দেওয়ার বিষয়ে আরো একটা দাবি তুলেছে যা জানার পর আপনিও অবাক হবেন। কংগ্রেস সম্প্রতি জানিয়েছে তাদের সরকার কর্নাটকে ৪ বছরে ১৫ লক্ষ চাকরি দিয়েছে।

এখন কংগ্রেসের দাবিদুটির উপর একটু মনোযোগ দিলে বুঝতে পারবেন কংগ্রেস কতটা বোকা বানাচ্ছে জনগণকে। কংগ্রেসের দাবি মোদী সরকার দেশের প্রত্যেকদিন ৪৫০ থেকে ৫০০ চাকরি দেয় অর্থাৎ এক বছরে চাকরির সংখ্যা দাঁড়ায় (৫০০*৩৬৫) অর্থাৎ ১৮২৫০০ সংখক। অর্থাৎ ৪ বছরে মোদী সরকার ৭৩০০০০ সংখ্যক(কংগ্রেসের দাবি অনুযায়ী) চাকরি দিয়েছে।

কংগ্রেসের দাবি অনুযায়ী মোদী সরকার ৪ বছরে চাকরি দিয়েছে ৭ লক্ষ অন্যদিকে কংগ্রেস দাবি করছে তারা কর্নাটকে ৪ বছরে চাকরি দিয়েছে ১৫ লক্ষ। প্রশ্ন উঠছে কংগ্রেস কি তাহলে কর্নাটককে ভারতের বাইরে মনে করে? না জনগণকে বোকা বানাচ্ছে কংগ্রেস?

আপনাদের জানিয়ে রাখি Employees’ Provident Fund Organisation (EPFO) and the National Pension System (NPS) জানিয়েছে মোদী সরকার সেপ্টেম্বর ২০১৭ থেকে ফেব্রুয়ারি ২০১৮ এর মধ্যে ৩.১ মিলিয়ন চাকরি দিয়েছে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.