Press "Enter" to skip to content

কথামতো কাজ, পাঠ্যক্রম থকে টিপু সুলতানের অধ্যায় হটাল বিজেপি শাসিত কর্ণাটক

ব্যাঙ্গালুরুঃ ের () মাইসোরের ১৮ শতাব্দীর বিতর্কিত শাসক () আর তাঁর বাবা হায়দার আলীর অধ্যায়কে সপ্তম শ্রেণীর সমাজ বিজ্ঞান পাঠ্যপুস্তক থেকে হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। করোনার মহামারীর কারণে ২০২০-২১ পাঠ্যক্রম কম করার কর্ণাটক সরকারের নির্ণয়ের পর এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। যদিও, আধিকারিক সুত্র জানায় যে ষষ্ঠ আর দশম শ্রেণীর পাঠ্যক্রমে এখনো টিপু সুলতানের অধ্যায় আছে।

কর্ণাটক পাঠ্যপুস্তক সোশ্যাইটির ওয়েব সাইটে সংশোধিত পাঠ্যক্রমকে আপলোড করা হয়েছে। ওই পাঠ্যক্রম দেখে জানা যায় যে, সপ্তম শ্রেণীর সমাজ বিজ্ঞানের পাঠ্যপুস্তক থেকে হায়দার আলী, টিপু সুলতান, মাইসোরের ঐতিহাসিক স্থল আর প্রশাসনের কমিসনারের অধ্যায় হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। লোক নির্দেশ বিভাগ মহামারীর কারণে ২০২০-২১ এর পাঠ্যক্রম কম করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

অধ্যায় হটানোর একটি প্রশ্ন নিয়ে আধিকারিকরা জানান, সপ্তম শ্রেণীর পাঠ্যক্রম থেকে টিপু সুলতানের অধ্যায় হটানো হয়েছে ঠিকই, কিনতি ষষ্ঠ আর দশম শ্রেণীর পাঠ্যক্রমে এখনো টিপু সুলতানের অধ্যায় আছে। কয়েকমাস আগে পাঠ্যপুস্তক থেকে টিপু সুলতানের গুণগান করার এক অধ্যায় হটানো নিয়ে বিজেপির কিছু নেতা দাবি জানিয়েছিলেন, আর এরপর সরকারি একটি বিশেষ কমিটি গঠন করেছিল। যদিও কমিটি জানিয়েছিল যে, স্কুলের পাঠ্যক্রমে শাসককে নজরআন্দাজ করা যাবে না।

এই ঘটনায় কর্ণাটকের কংস সভাপতি ডিকে শিবকুমার বলেন, বিজেপি সরকার রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডাকে মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উনি বলেন, ‘আপনি ইতিহাস বদলাতে পারবেন না। আমরা এটা স্বীকার করে নেব না। কংগ্রেস এই ইস্যুকে মাথায় রেখে একটি কমিটি গঠন করবে।”