Press "Enter" to skip to content

করোনার মহামারীর মধ্যে ভারত আমাদের সামনে দেবদূত হয়ে প্রকট হয়েছে, জাতিসংঘের মহাসভায় বলল মালদ্বীপ


নয়া দিল্লীঃ ের () বিদেশ মন্ত্রী () সংযুক্ত রাষ্ট্রের মহাসভায় দেওয়া নিজের ভাষণে ের () তরফ থেকে করোনা মহামারীর মধ্যে দেওয়া ২৫০ মিলিয়ন ডলারের সাহাজ্যের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। মালদ্বীপের বিদেশ মন্ত্রী বলেন, ‘এই সঙ্কটের সময়েও আপনাদের সাহাজ্যের জন্য ধন্যবাদ জানাই। আপনারা এই সঙ্কটের সময়েও উদার মনোভাব দেখিয়ে শারীরিক আর প্রযুক্তিগত সহায়তা করেছেন।”

মালদ্বীপের বিদেশ মন্ত্রী ভারতকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘এই সঙ্কটের সময়েও ভারত আমাদের সামনে দেবদূত হয়ে প্রকট হয়েছে। এই সঙ্কটের সময়ে ভারত আমাদের ২৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সহায়তা করেছে, যেটা সবথেকে বড় আর্থিক মদত ছিল।”.

মালদ্বীপের বিদেশ মন্ত্রী অনুযায়ী, COVID -19 মালদ্বীপকে ভয়ানক ভাবে প্রভাবিত করেছে। দেশের আর্থিক অবস্থায় খুব খারাপ প্রভাব পড়েছে। মালদ্বীপের আয়ের সবথেকে বড় অংশ পর্যটন কেন্দ্র থেকে আসে। কিন্তু এই মহামারীর সময় পর্যটন ব্যবস্থা পুরোপুরি বসে যায়। আর দেশ আর্থিক সমস্যার সন্মুখিন হয়।

জানিয়ে দিই, এই মাসের শুরুতে মালদ্বীপের রাজধানী মালে তে একটি অনুষ্ঠানের সময় মালদ্বীপের বিদেশ মন্ত্রী অবদুল্লা শাহিদ, অর্থমন্ত্রী ইব্রাহিম ওমর, ভারতীয় হাইকমিশনার সঞ্জয় সুধীর আর স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সিইও ভারত মিশ্রার উপস্থিতিতে অফিসিয়ালি ভাবে ভারত মালদ্বীপকে ২৫০ মিলিয়ন ডলারের আর্থিক সহায়তা করেছিল।

মালদ্বীপই একমাত্র দেশ, যেখানে ভারত করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আর্থিক দিক থেকে এত বড় সাহাজ্য দিয়েছিল। এছাড়াও করোনার মধ্যে ভারত মালদ্বীপকে আরও অনেক ভাবে সাহাজ্য করেছিল। ভারত মালদ্বীপে র‍্যাপিড রেসপন্স টিমও পাঠিয়েছিল। ৫.৫ টন ওষুধ, খাদ্যশস্য, পিঁয়াজ এবং ৫৮০ টন রেশন পাঠিয়েছিল।