Press "Enter" to skip to content

করোনা আর চীন নিয়ে বললেন অমিত শাহ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দুটো লড়াইয়েই জিতবে ভারত

নয়া দিল্লীঃ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী () ANI কে দেওয়ার একটি সাক্ষাৎকারে রবিবার ভারত-চীন সীমান্ত বিবাদ এবং দিল্লীতে করোনার পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন। উনি রাহুল গান্ধীর () বিরুদ্ধে ঘৃণ্য রাজনীতি করার অভিযোগ তোলেন। উনি বলেন, সরকার সংসদে তর্কের জন্য প্রস্তুত। ১৯৬২ থেকে আজ পর্যন্ত যা যা হয়েছে, সেগুলো নিয়ে আলোচনা হয়ে যাক। আরেকদিকে উনি দিল্লীতে করোনার ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে বলেন, আমরা চেষ্টা করছি আর এই চেষ্টায় সফল হবই।

https://platform.twitter.com/widgets.js

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ কংগ্রেসের প্রাক্তন সাংসদ রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ঘৃণ্য রাজনীতি করার অভিযোগ তুলে বলেন, সীমান্ত বিবাদ উনি এমন বয়ান দিচ্ছেন, যেটা পাকিস্তান আর চীন খুব পছন্দ করছে। উনি বলেন, সরকার সংসদে চর্চার জন্য প্রস্তুত। অমিত শাহ বলেন, ‘সংসদ আছে, চর্চা করার থাকলে আসুন করছি। ১৯৬২ থেকে আজ পর্যন্ত যা যা হয়েছে সব নিয়েই চর্চা হোক। আমরা চর্চা থেকে ভয় পাইনা।

উনি বলেন, একদিকে জওয়ানরা লড়ছে, সরকার কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে। তখন আরেকদিকে পাকিস্তান আর চীনকে খুশি করার জন্য এরকম বয়ান দেওয়া উচিৎ না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারত দুটি লড়াইয়েই জিতবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, ‘আমরা সম্পূর্ণ ভাবে ভারত বিরোধী অ্যাজেন্ডা সামলানোর জন্য প্রস্তুত। কিন্তু দুঃখ হয় যে, এত পুরনো দলের প্রাক্তন সভাপতি এই দুঃসময়েঅ ঘৃণ্য রাজনীতি করছে। কংগ্রেস আর ওনার জন্য আত্মপরিদর্শনের সময় হয়ে এসেছে। ওনার হ্যাশট্যাগ স্যারেন্ডার মোদী গত সপ্তাহে ভাইরাল হয়ে গেছিল, আর চীন আর পাকিস্তানে সেটি ব্যপক ভাবে ব্যবহার করা হয়েছে।”

উনি বলেন, এটা আমদের জন্য না এটা কংগ্রেসের জন্য ভাবনার বিষয়। কংগ্রেসের নেতাদের হ্যাশট্যাগ দুঃসময়ে চীন আর পাকিস্তানে প্রচার হচ্ছে। যেটা চীন আর পাকিস্তান পছন্দ করে সেটাই বলছেন।