Press "Enter" to skip to content

করোনা চিকিৎসার নামে লুঠতরাজ চালাচ্ছিল হাসপাতাল, যোগীর নির্দেশে তড়িঘড়ি ফেরত দিল টাকা

ঃ উত্তর প্রদেশে করোনার চিকিৎসার নামে রোগীদের থেকে বেশী টাকা উসুল করার কারণে হাসপাতালের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেওয়া হচ্ছে। সরকারের কড়া পদক্ষেপের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীদের টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হচ্ছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নির্দেশে এর আগেই গৌতম বুদ্ধ নগর আর এবার হাপুড় এবং মেরঠের হাসপাতালগুলো রোগীদের টাকা ফেরত দিচ্ছে।

উত্তর প্রদেশের হাসপাতালেগুলতে করোনার চিকিৎসার জন্য রেট নির্ধারিত করা হয়েছে। ওই রেট অনুযায়ী, আইসোলেশনে ভর্তি রোগীদের দৈনিক ৪ হাজার ৮০০ টাকা, আইসিইউর জন্য দৈনিক ৭ হাজার ৮০০ টাকা, আইসিউ-ের জন্য দৈনিক ৯ হাজার টাকা স্থির করা হয়েছিল। এর মধ্যে অক্সিজেন, বেড, ভোজন, নার্সিং সার্ভিস, মেডিক্যাল পরীক্ষা এবং ডাক্তারদের কনসাল্ট যুক্ত আছে। এইসব পরিষেবার জন্য হাসপাতাল কোনও রোগীর থেকে অতিরিক্ত মূল্য নিতে পারবে না।

যদিও, প্রশাসন দ্বারা চিকিৎসার রেট বেধে দেওয়ার পরও রোগীদের থেকে অতিরিক্ত মূল্য উসুল করার অনেক ঘটনা সামনে এসেছিল। লাগতার অভিযোগ আসার পর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ প্রশাসনকে বিষয়টি দেখার জন্য নির্দেশ দিয়ে বলেন, অভিযোগ প্রমাণ হলে হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

এরকমই কিছু অভিযোগ মেরঠ প্রশাসনের কাছে জমা পড়ে। এরপর প্রশাসন দুটি করোনা হাসপাতালে কড়া নোটিশ দেয়। এবং পাঁচটি হাসপাতালে নির্ধারিত মূল্যের বেশী উসুল করার জন্য টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশিকা জারি করা হয়। প্রশাসনের কড়া নির্দেশের পর ৬৪টি হাসপাতাল রোগীদের থেকে উসুল করা অতিরিক্ত মূল্য ফেরত দেয়।