Press "Enter" to skip to content

কর্নাটকে প্রচারে গিয়ে মোদীজি রাহুল গান্ধীকে এমন চ্যালেঞ্জ দিলেন যা রাহুল গান্ধীর সাধ্যের বাইরে।

একদিকে দেশের যিনি দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য নিজের পরিবারের কথা ভুলে অনবরত কাজ করে যাচ্ছেন অন্যদিকে এর রাহুল আবার দেশের তাদের পরিবারতন্ত্র চালাবার জন্য মোদী সরকারকে সরাবার চেষ্টা করছেন। কংগ্রেস বহু বছর ধরে দেশে নিজেদের পরিবারতন্ত্র চালিয়ে এসেছে এবং বর্তমানেও সে পরিবারতন্ত্র ফিরে পাওয়ার জন্য রাহুল গান্ধী মোদীজিকে অনবরত আক্রমণ করে চলেছে।

সম্পতি রাহুল গান্ধী, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে বলেছিলেন, ‘যদি আমাকে ১৫ মিনিট বলতে সময় দেওয়া হয় তাহলে মোদীজি দাঁড়িয়ে থাকতে পারবেন না। ‘ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এই কথা সংবাদ মাধ্যমের কাছে এমনভাবে বলেন যেন উনার কাছে অনেক গোপন কথা লুকিয়ে রয়েছে। আপনাদের জানিয়ে এর আগেও রাহুল গান্ধী অনেকবার এইরকম মন্তব্য করেছিলেন। একবার তো রাহুল গান্ধী বলেন আমাকে সাংসদে বলতে দেওয়া হলে ভূমিকম্প চলে আসবে।

আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ের প্রচারে বেরিয়েছেন এবং প্রথমদিনেই তিনি রাহুল গান্ধীকে তার ‘১৫ মিনিট কথা বলতে দেওয়া হলে’ এই মন্তব্যের উপর জবাব দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন,
” লোকতন্ত্রে প্রত্যেক মানুষের কথার মূল্য থাকে তাতে সে কোনো সাধারণ নাগরিক হলেও তার কথাকে মূল্য দিয়ে দেখা হয়। আমাদের সরকারও সবার কথা খুবই গম্ভীরভাবে সবার মন্তব্যের উপর বিচার করি। রাহুল গান্ধী বলেছেন যদি ওনাকে ১৫ মিনিট বলতে দেওয়া হয় তাহলে আমি দাঁড়িয়ে থাকতো পারবো না। রাহুল বাবু আপনি ঠিকই বলেছেন , আমাদের আর কি যোগ্যতা আপনার সামনে দাঁড়িয়ে থাকার! আপনি তো নাার ব্যাক্তি আর আমরা তো কামদার ব্যাক্তি। ”

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, “আপনি একটা কাজ করুন কর্নাটকে নির্বাচনে প্রচারের সময় আপনি যেকোনো ভাষায়, হিন্দি বলতে পারলে হিন্দি, ইংরাজি বলতে পারলে ইংরাজি বা আপনার মায়ের মাতৃ ভাষা বলতে পারলে মাতৃভাষায় ১৫ মিনিট হাতে সময় নিয়ে এবং কোনো কাগজ ছাড়া কর্নাটকে আপনার সরকারের কাজ যদি বলে দিতে পারেন তাহলে কর্ণাটকের জনগণ বুঝতে পারবে আপনার কথায় কতটা দম রয়েছে।” প্রধানমন্ত্রীর এই চ্যালেঞ্জ রাহুল গান্ধী পূরণ করতে পারে কিনা এখন সেটাই দেখার।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, রাহুল গান্ধী কোনো সভায় কাগজ ছাড়া কোনো কথা বলতে পারেন না। উনার সরকার যে যে রাজ্যে রয়েছে সেখানে কি কাজ করেছে তাও রাহুল গান্ধী বলতে পারেননা। আসলে রাহুল গান্ধী দেশে শাসন চালাতে চান কারণ রাহুল গান্ধী দেশে তার পরিবারতন্ত্র চালিয়ে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান। দেশে কোনোরকম কাজ করা বা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কোনো ইচ্ছে রাহুল গান্ধীর মধ্যে নেই। তাই রাহুল গান্ধী কোনোক্রমেই এই চ্যালেঞ্জ পূরণ করতো পারবেন না।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.