Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর নিয়ে বড় ঘোষণা UAE-র, মুখ পুড়ল ভারত বিরোধীদের

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ কাশ্মীর যে ভারতে অংশ এটা সবাই জানলেও পাকিস্তান মানতে নারাজ। 370 এবং 35A ধারা বাতিলের পর কেন্দ্রের তরফ থেকে কাশ্মীরে অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করা হয়েছে। পাশাপাশি এখন জম্মু ও কাশ্মীরে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে, এবং অনেক উন্নয়ন মূলক প্রকল্প চালাচ্ছে কেন্দ্র। এবং সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরশাহিও ভারতের দিকে একটি বড় ঝোঁক দেখিয়েছে, যা অভিবাদন জানানোর মতো পদক্ষেপ।

দুবাইয়ের বৃহত্তম নির্মাতা গোষ্ঠী যেটি একভাবে সেখানকার সরকারের সাথে সম্পর্কিত, তাঁরা ঘোষণা করেছে যে তাঁরা জম্মু ও কাশ্মীরে একটি ৫ লক্ষ বর্গফুট মেগা মল তৈরি করবে, যা কাশ্মীরের পর্যটন এবং অর্থনীতিকে বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করবে। এই ঘোষণার পর একদিকে যেমন দুবাই কাশ্মীরে একটি বড় বিনিয়োগ করছে, তেমনই আরেকদিকে এটি কাশ্মীর নিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারতের দাবিকে আরও সত্য করে তোলে।

আমরা যদি Emaar গ্রুপের কথা বলি, তাহলে এটি একটি ছোটখাটো ব্যবসায়িক গ্রুপ নয়, দুবাই থেকে পুরো সংযুক্ত আরব আমিরাত গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এই গোষ্ঠীর সবচেয়ে বড় হাত রয়েছে। আজ দুবাই মল যাকে বিশ্বের বৃহত্তম মল হিসাবেও বিবেচনা করা হয়, যেখানে একজন ব্যক্তি একদিনে ঘোরাঘুরি করেও শেষ করতে পারবে না। এই মল Emaar গ্রুপ দ্বারা নির্মিত হয়েছে। ভারতে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসের কাজও এই গোষ্ঠীই সামলেছিল।

অর্থাৎ, এটা নিশ্চিত যে কাশ্মীরে যা কিছু তৈরি হবে তা আইকনিক হয়ে উঠবে এবং আমরা প্রায় চারিদিক থেকেই এর প্রশংসা শুনতে পাব। এখন এর প্রভাব কতটা পড়বে এবং কতটা বড় হবে, সেটা সময়ই বলে দেবে।

Emaar গ্রুপ হোক বা সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, অনেক দেশই কাশ্মীরে বিনিয়োগের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। এবং মুসলিম দেশগুলি যদি কাশ্মীরে বিনিয়োগ করে, তবে তা পাকিস্তানকে একঘরে করে দেওয়ার মতো পদক্ষেপ হয়ে উঠবে। আর কাশ্মীর নিয়ে আরবের এই ঘোষণা যে ভারত বিরোধী এবং পাকিস্তানের ক্ষেত্রে বড়সড় একতা ঝটকা, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

[ad_2]