Press "Enter" to skip to content

কুখ্যাত গুণ্ডা মহম্মদ পারভেজকে এনকাউন্টারে বধ করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ!

রাজ্য মূলত ভারত দেশের হিন্দু ধৰ্ম সংস্কৃতির একটা মূল কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। তবে রাজনৈতিক নেতা নেত্রীদের ছত্রছায়ায় অশুভ শক্তির অতি প্রাধান্য এর কারণে এক সময় উত্তরপ্রদেশ পুরো দেশের গুণ্ডারাজ্য নামে পরিচিত হয়ে পড়েছিল। অবশ্য যোগী সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে উত্তরপ্রদেশের ছবি বদলাতে শুরু হয়েছে। আর এই কাজে বড়ো ভূমিকা পালন করেছে উত্তরপ্রদেশ

একের পর এক ীকে জেলে ঢোকানো থেকে শুরু করে এনকাউন্টার করা অশুভ শক্তির ভিত দুর্বল করেছে। তাজা খবর উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর থেকে আসছে। যেখানে মহম্মদ পারভেজ নামের কুখ্যাত গুণ্ডাকে খতম করা হয়েছে। মহম্মদ পারভেজ একজন সার্প শুটার হিসেবেও পরিচিত ছিল।

মহম্মদ পারভেজের খোঁজের জন্য ১ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল। পারভেজ নামের এক গুণ্ডাকে ছোটা রাজন ও খান মুবারকের ডান হাত বলে দাবি করে থাকে। ইউপি এসটিএফ এনকাউন্টার করে এই গুণ্ডাকে বধ করেছে। নকল টাকার ব্যাবসা, তোলাবাজির সিন্ডিকেট চালাতো এই পারভেজ আহমদ।

বহুজন সমাজবাদী পার্টির এক নেতাকে হত্যা করে নেপাল পালিয়ে ছিল পারভেজ আহমদ। সেখান থেকে তার উত্তরপ্রদেশের গ্যাংকে নিয়ন্ত্রণ করতো। উত্তরপ্রদেশ এসটিএফ খবর পেয়েছিল যে পারভেজ কারোর সাথে দেখা করার জন্য নেপাল থেকে উত্তরপ্রদেশে আসবে। গোরক্ষপুরের চিলুআতালা এলকায় পুলিশ পারভেজকে ঘিরে ফেলে। আত্মসমর্পণ করতে বলা হলে সে পুলিশ উপর ফায়ারিং করে দেয়। প্লাটা পুলিশ ফায়ারিং করলে মারা পড়ে পারভেজ।