Press "Enter" to skip to content

কেজরিওয়াল সরকারকে বড়ো ঝটকা দিল মোদী সরকার! চলবে না ইচ্ছেমতো রেশন বিতরণ

সাম্প্রতিক কেন্দ্রীয় দিল্লি সরকারকে ‘ডোর-টু-ডোর’ রেশন ডেলিভারি স্কিম ্তবায়নের অনুমতি দিতে অস্বীকার করেছে। আম আদমি পার্টি (এএপি) -এর নেতৃত্বাধীন দিল্লি সরকার অভিযোগ করেছে যে এটি ীয় জনতা পার্টি () এবং রেশন মাফিয়াদের মধ্যে অশুভ আঁতাতের ঘটনা। কিন্তু খোঁজ নিয়ে দেখা গিয়েছে, দিল্লি সরকারের এই স্কিমের অজুহাতে একের পর এক দুর্নীতি হয়েই চলেছে।

রেশনের একটি বড় অংশ ধনী ও উচ্চবিত্তদের হস্তগত হচ্ছে। এর ফলে কেন্দ্রীয় সরকার অসন্তুষ্ট হয়েছে। ফলস্বরূপ কেন্দ্রীয় সরকার ও দিল্লি সরকারের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে। ি সরকার এর পরিপ্রেক্ষিতে বলেছে, দল বা কেন্দ্র সরকারের দিল্লি সরকারের স্কিম নিয়ে কোন সমস্যাই নেই যদি সে নিজের রেশনের ব্যবস্থা নিজে করতে পারে।

দিল্লি হাইকোর্ট ১লা অক্টোবর দিল্লি সরকারকে শর্তসাপেক্ষে এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নের অনুমতি দিয়েছে। হাইকোর্ট সরকারকে বলেছে, রেশন কার্ডধারীদের তথ্য ভাগ করে নিতে এবং যারা তাদের রেশন বাড়িতে পাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাদের তথ্য জমা রাখতে। AAP পার্টির পক্ষ থেকে সমস্ত বিবরণসহ অনুমোদনের জন্য লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বৈজালের কাছে রেশন ডেলিভারি স্কিমের একটি ফাইল পাঠিয়েছিল। এই নিয়ে তৃতীয়বার অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার এই প্রকল্পের জন্য এলজি -র কাছে অনুমোদন পাঠিয়েছে। কিন্তু দিল্লি সরকারের পূর্বের ব্যর্থতা থেকে অনুমতি গ্রাহ্য হয়নি।

দিল্লি সরকার ২৫ শে মার্চ এই স্কিমটি চালু করার জন্য সমস্ত প্রস্তুতি নিয়েছিল কিন্তু কেন্দ্রীয় ভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল যে এনএফএসএ-র অধীনে খাদ্য বিতরণের জন্য কেন্দ্র কর্তৃক বরাদ্দ খাদ্যশস্য রাজ্য-নির্দিষ্ট বা কোনও চালানোর জন্য ব্যবহার করা যাবে না।