Press "Enter" to skip to content

কেজরীবালের কুকীর্তি ফাঁস! প্রয়োজনের থেকে ৪ গুণ বেশি অক্সিজেন নিয়ে বিপদে ফেলেছিল বহু রাজ্যকে

নয়া দিল্লীঃকরোনার দ্বিতীয় ঢেউ ে আছড়ে পড়তেই গোটা দেশে অক্সিজেনের সংকট দেখা দেয়। বড়বড় শহর আর রাজ্যগুলোতে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার পড়ে যায়। এরপর সুপ্রিম কোর্ট দ্বারা অকিসজেন অডিট টিম গঠন করা হয়। ওই টিমের প্রাথমিক তদন্তের রিপোর্ট সামনে এসেছে। রিপোর্টে দিল্লীর কেজরীবাল সরকার (Arvin Kejriwal ) দ্বারা সেই সময় অক্সিজেনের দাবি করা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, যখন ১ হাজার ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের দাবি করে গোটা দেশ মাথায় তুলেছিল, তখন তাঁদের মাত্র ৩০০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের দরকার ছিল।

রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে যে, দিল্লীর এই দাবির কারণে ১২টি রাজ্যে অক্সিজেনের অভাব দেখা দেয়। করণ তখন কেজরীবাল সরকারের দাবি অনুযায়ী দিল্লীতে অক্সিজেন সরবরাহ করা হচ্ছিল। অক্সিজেন টাস্ক ফোর্স অনুযায়ী, ২৯ এপ্রিল থেকে ১০ মে পর্যন্ত কয়েকটি হাসপাতালের ডেটা ঠিক করা হয়েছিল। দিল্লী সরকার সেই সময় ১১৪০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের অভাব বলেছিল, কিন্তু খতিয়ে দেখার পর জানা যায় যে, সেই সময় মাত্র ২০৯ মেট্রিক টন অক্সিজেনের দরকার ছিল।

টাস্ক ফোর্সের তরফ থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে, দেশে অক্সিজেন নির্মাণের জন্য একটি সটীক রণনীতির দরকার। বড়বড় শহরের আশেপাশেই অক্সিজেন নির্মাণ ব্যবস্থা করা দরকার, এরফলে ৫০ শতাংশ সাপ্লাই সেখান থেকেই করা যাবে। আর এর জন্য দিল্লী এবং মুম্বাইকে প্রাধান্য দেওয়া হতে পারে।

অডিট প্যানেলের এই রিপোর্টের পর রাজনৈতিক প্রতিক্রিয়া আসা শুরু হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাবড়েকর টুইট করে লিখেছেন, অক্সিজেনের যতটা দরকার ছিল তাঁর থেকে ৪ গুণ বেশি চেয়ে অন্য রাজ্যগুলোকে বিপদের মুখে ফেলা হয়েছে। অকারণে চিৎকার করা কেউ দিল্লী সরকারের থেকে ুক।

দিল্লীর বিজেপি নেতা বিজেন্দ্র গুপ্তা টুইট করে ইখেছেন, দিল্লী সরকার প্রয়োজনের তুলনায় চারগুণ বেশি অক্সিজেনের দাবি করেছিল, এরপরেও কেন্দ্র তাঁদের অক্সিজেনের সরবরাহ করেছিল। কিন্তু সেই অক্সিজেন হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হয়নি। দিল্লীর মানুষকে এরপর বাধ্য হয়ে বেশি দামে অক্সিজেন কিনতে হয়।